kalerkantho


রাবি ভর্তি পরীক্ষা: প্রক্সির দায়ে যুবকের কারাদণ্ড

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ২১:১৩



রাবি ভর্তি পরীক্ষা: প্রক্সির দায়ে যুবকের কারাদণ্ড

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার শেষদিনে প্রক্সি জালিয়াতির ঘটনায় একজনকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় ‘বি-২’ গ্রুপের পরীক্ষায় প্রক্সি জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়ায় তাকে এ দণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মোছা. রনী খাতুন। দণ্ডপ্রাপ্তকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্ত যুবক মো. মুনসুর রহমান রাজশাহীর বাঘা উপজেলার মনিগ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে। সে রাবির ইতিহাস বিভাগের ২০১০-১১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ছিল।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে ব্যবসায় অনুষদভুক্ত ‘বি-২’ গ্রুপের পরীক্ষা শুরু হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ ইসমাঈল হোসেন সিরাজী ভবনের ৪২৫ নম্বর কক্ষে ভর্তীচ্ছু আল-আমিনের হয়ে পরীক্ষা দিচ্ছিল সে। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ওই কক্ষ পরিদর্শনে যান। মুনসুরের প্রবেশ পত্রের ছবির সঙ্গে বাস্তবের চেহারার সাদৃশ্যে অসামঞ্জস্য পাওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতকে খবর দেন প্রক্টর। ঘণ্টাব্যাপী জিজ্ঞাসাবাদে মুনসুর জালিয়াতির বিষয়টি স্বীকার করলে তাকে এ দণ্ড প্রদান করা হয়।

জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, হল পরিদর্শনের সময় মুনসুরের প্রবেশপত্র দেখে সন্দেহ হয়। পরে দায়িত্বরত পরিদর্শক ও আমি তার প্রবেশপত্রে অসঙ্গতি দেখতে পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতকে খবর দেই। পরে তারা প্রমাণ পাওয়ায় এ দণ্ড প্রদান করেছেন।

এদিকে পরীক্ষার দ্বিতীয় দিন ‘বি-২’ গ্রুপ ছাড়াও  ‘এ’ এবং ‘ই’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পাঁচটি গ্রুপে অনুষ্ঠিত এ পরীক্ষা চলে বিকাল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত। এ বছর পাঁচটি ইউনিটে চার হাজার ২৭৩টি আসনের বিপরীতে ১ লাখ ৪৭ হাজার ৭৫৩ জন ভর্তিচ্ছু প্রতিযোগিতা করেন।



মন্তব্য