kalerkantho


নিজ বাড়িতে ফিরতে চায় শাজাহানপুরের সিমেনপাড়ার মানুষ

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি   

২২ অক্টোবর, ২০১৮ ২১:৩৪



নিজ বাড়িতে ফিরতে চায় শাজাহানপুরের সিমেনপাড়ার মানুষ

বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার খোট্টাপাড়া ইউনিয়নের ভান্ডারপাইকা গ্রামের সিমেনপাড়ায় জমি-জমা নিয়ে বিরোধের জেরে আওয়ামী লীগ নেতার নির্দেশে দফায় দফায় হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনায় ঘরছাড়া মানুষজন নিজ বসতবাড়িতে ফিরতে চায়।

অপরদিকে হামলাকারীদের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে পুরুষাঙ্গ হারাতে বসেছে মিরল (১০) নামে এক শিশু। বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে থাকায় প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন শিশু মিরলের বাবা-মা।

শিশু মিরলের বাবা আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, মিরলের অবস্থা ভালো না। হামলাকারীদের লাঠির আঘাতে মিরলের পুরুষাঙ্গ গুরুতর ফুলা জখম হয়েছে। একস্থান থেকে আরেক স্থানে পালিয়ে থাকার কারণে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিতে পারছেন না।

সিমেনপাড়ার চাঁন মিয়ার ছেলে রুবেল জানান, এখনো বাড়ি-ঘরে লুটপাট করা হচ্ছে। রবিবার দিবাগত রাতে তার ১টি ফ্রিজ, ৩টি সেলিং ফ্যান ও ঘরের টিন খুলে নিয়ে গেছে বলে প্রতিবেশীরা মোবাইল ফোনে তাকে জানিয়েছে। ৩ দিন যাবৎ এক কাপড়ে বসতভিটা ছেড়ে শিশু সন্তানদের নিয়ে বিভিন্ন স্থানে পালিয়ে আত্মগোপনে থাকায় দুর্বিসহ জীবন-যাপন করতে হচ্ছে। এমতাবস্থায় প্রশাসনের মাধ্যমে জীবনের নিরাপত্তাসহ বসতভিটায় ফিরে যেতে চায় তারা।

থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, পালিয়ে বেড়ানোর মতো কোনো ঘটনা ঘটেনি। স্থানীয় চেয়াম্যান ও মেম্বারদের সাথে কথা বলেন। তারাই বলবে কারা এর জন্য দায়ী।

খোট্টাপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল ফারুক জানান, সিমেনপাড়ার লোকজন বাড়ি-ঘরে ফিরলে কেউ তাদেরকে বাঁধা দেবে না। তারা এসে বলুক প্রয়োজনে তাদের যা ক্ষতি হয়েছে তার ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, শাজাহানপুর উপজেলার খোট্টাপাড়া ইউনিয়নের ভান্ডারপাইকা গ্রামের সিমেনপাড়ায় জমি-জমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালেবুল ইসলাম তালেব এবং কমিউিনিটি পুলিশিং এর খোট্টাপাড়া ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুল কাদের মাস্টারের নির্দেশে গত শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা এবং পরদিন শনিবার সকাল ৭ টার দিকে প্রতিপক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে ৬টি বসতবাড়ি ব্যাপক ভাঙচুর করে লেপ, তোষক, টাকা, গহনা, গবাদি পশু, জমি-জমার কাগজপত্র লুটপাট করেছে বলে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। প্রতিপক্ষের হামলায় ভয়ে প্রাণ বাঁচানোর তাগিদে সিমেনপাড়ার প্রায় অর্ধশতাধিক নারী, পুরুষ ও শিশু বাড়ি-ঘর ছেড়ে এক কাপড়ে পালিয়ে বিভিন্ন স্থানে তিন দিন যাবৎ আশ্রয় নিয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে।



মন্তব্য