kalerkantho


ইউপি চেয়ারম্যানের গাড়ি থেকে ইয়াবাসহ দুই পাচারকারি আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

১৯ অক্টোবর, ২০১৮ ২২:৫৫



ইউপি চেয়ারম্যানের গাড়ি থেকে ইয়াবাসহ দুই পাচারকারি আটক

ছবি: কালের কণ্ঠ

কক্সবাজারের টেকনাফ সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা কারবারি মোহাম্মদ শাহজাহানের মালিকানাধীন একটি প্রাইভেট জীপ তল্লাশি করে ১৩ হাজার ৯৬০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৭ এর সদস্যরা। এ ঘটনায় গাড়ির চালকসহ দুই ইয়াবা পাচারকারিকেও আটক করা হয়েছে।

র‌্যাব সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে টেকনাফ থেকে মেরিন ড্রাইভ সড়ক দিয়ে কতিপয় মাদক কারবারি ইয়াবা পাচারের খবরের ভিত্তিতে র‌্যাব-৭ এর একটি দল শুকনাছড়ি নামক এলাকায় চেকপোস্ট বসায়। এ সময় টেকনাফ থেকে আসা একটি টয়োটা জীপ গাড়ি যার নং ঢাকা মেট্রো-ক-০২-০৫৬৪ কে থামিয়ে গাড়ির চালক ও অপর ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এক পর্যায়ে তাদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে গাড়ির ইয়ার ক্লিনারের মধ্যে বিশেষ কায়দায় রাখা এসব ইয়াবা পাওয়া যায়।

র‌্যাবের হাতে আটক দুই পাচারকারি হলেন- টেকনাফ পুরাতন পল্লান পাড়ার বাসিন্দা জীপ চালক রহমত উল্লাহ (৩২) ও একই এলাকার মো. ইব্রাহিম (৩০)। আটক পাচারকারীদের স্বীকারোক্তিতে জানা গেছে ইয়াবা পাচারে অন্য পলাতক আসামিরা হলেন- মো. হাসেম (৪০), সৈয়দ আলম (৩০), মো. ফারুক (৩০)। তারা সবাই টেকনাফের বাসিন্দা।

এ ব্যাপারে র‌্যাব-৭ কক্সবাজার এর কম্পানি অধিনায়ক মেজর মো. মেহেদী হাসান বলেন, প্রায় ৭০ লাখ টাকা মূল্যের ১৩ হাজার ৯৬০ পিস ইয়াবাসহ একটি সাদা রংয়ের টয়োটা জীপ গাড়ি জব্দ করা হয়েছে। টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল বাশার জানান, ইয়াবা বোঝাই র‌্যাবের জব্দ করা প্রাইভেট জীপটির মালিক টেকনাফের তালিকাভুক্ত ইয়াবা ডন এবং টেকনাফ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাফর আহমদের পুত্র ও টেকনাফ সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এবং তালিকাভুক্ত ইয়াবা কারবারি মোহাম্মদ শাহজাহান।



মন্তব্য