kalerkantho


বিশ্বনাথে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি    

১৯ অক্টোবর, ২০১৮ ১৯:৪০



বিশ্বনাথে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ

সিলেটের বিশ্বনাথে উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বন্ধ হয়েছে একটি বাল্যবিয়ে। ছেলে-মেয়েকে বাল্য বিয়ে দেওয়া হবে না বলে উপজেলা প্রশাসনে লিখিত অঙ্গীকারনামা দিয়েছেন বর-কনের বাবা। আজ শুক্রবার (১৯ অক্টোবর) এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার নতুন পারকুল গ্রামের ছমরু মিয়ার ছেলে কাউছার আহমদের (১৯) সঙ্গে বিশ্বনাথ উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের উজাজুরী গ্রামের মৃত আবদুল মুতলিবের মেয়ের (১৯) বিয়ের অনুষ্ঠান ছিল আজ শুক্রবার নকিখালিস্থ শাহ উসমান কমিউনিটি সেন্টারে। খবর পেয়ে প্রশাসনের কর্মকর্তারা সেখানে পৌঁছান। এ সময় বর-কনের জন্ম নিবন্ধন দেখে বরের বয়স প্রায় দুই বছর কম হওয়ায় প্রশাসন বিয়ে বন্ধ করে দেয়। 

রামপাশা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আলমগীর, থানার এসআই স্বাধীন তালুকদার, বরের বাবা ছমরু মিয়া, কনের মা, স্থানীয় ইউপি সদস্য ইছাক আলী, মিনা বেগম, সাংবাদিকসহ এলাকার ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ফাতেমা তুজ জোহরা বলেন, বাল্যবিয়ে ভেঙে দেওয়া হয়েছে। বর-কনের পক্ষের লোকজন বাল্যবিয়ে না দেওয়ার জন্য অঙ্গীকার করেছেন। উপজেলায় কোনো অবস্থায়  বাল্যবিয়ে হতে দেওয়া হবে না বলে জানান তিনি।



মন্তব্য