kalerkantho


জিয়া খুনীদের পুরস্কৃত করেছিলেন: তারানা হালিম

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ অক্টোবর, ২০১৮ ০৪:০০



জিয়া খুনীদের পুরস্কৃত করেছিলেন: তারানা হালিম

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, ৭৫ এর ১৫ আগস্ট শিশু শেখ রাসেলসহ বঙ্গবন্ধু পরিবারের অন্য সদস্যদের হত্যার মধ্যে দিয়ে খুনী চক্র দেশে মানবাধিকার লংঘন শুরু করেছে। জিয়াউর রহমান ছিলেন খুনী চক্রের প্রশ্রয়দাতা। তিনিই খুনীদের পুরস্কৃত করেছিলেন।

বৃহস্পতিবার টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। পরে তিনি শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে একটি কেক কাটেন।

তথ্য প্রতিমন্ত্রী বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলায় হিন্দু ধর্মাবলম্বী লোকজনের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। পরে তিনি উপজেলার পাথরাইল ইউনিয়নের নরুন্দা গ্রামের সার্বজনীন পুজামণ্ডপ প্রাঙ্গণে আয়োজিত সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।

প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেন, সেই বিএনপি-জামায়াত এখনো ঘাপটি মেরে আছে। তারা সুযোগ পেলেই আবারো বের হবে। বিপদে আপদে সব সময় একটি শক্তিকেই দেশের মানুষ পাশে পায়। সে শক্তিটি হলো অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের চেতনায় বিশ্বাসী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা যখন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকেন না তখনই ধর্মকে রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হয়। তার জলন্ত উদাহরণ ২০০১ সালের নির্বাচন। সে সময়ে বিএনপি-জামায়াত দেশের সংখ্যালঘু জনসাধারণের উপর নির্মম নির্যাতন চালিয়েছিল। তখন তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্যাতিত সেসব মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। আওয়ামী লীগ অফিসগুলোতে তাদের থাকা-খাওয়া, চিকিৎসা ও বস্ত্রের ব্যবস্থা করেছিলেন। তাই দেশের জনগন আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও নৌকার সাথেই থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিনু আনাহলী, দেলদুয়ার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শিবলী সাদিকসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।



মন্তব্য