kalerkantho


মধুমতি নদীর ভাঙন প্রতিরোধে পার্কো পাইলিং শুরু

চিতলমারী-কচুয়া (বাগেরহাট) প্রতিনিধি   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৫:৩৯



মধুমতি নদীর ভাঙন প্রতিরোধে পার্কো পাইলিং শুরু

মধুমতি নদীর ভাঙন প্রতিরোধে বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার শৈলদাহে বুধবার বেলা ১১টার দিকে বাঁশের খাঁচায় বালুর বস্তা ভর্তি পার্কো (খাঁচা) ফেলা হয়েছে। এ সময় চিতলমারী উপজেলা প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

চিতলমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবু সাঈদ বলেন, 'ঢাকা-পিরোজপুরের মহাসড়কটি মধুমতি নদীর জন্য শৈলদাহে ভেঙে যাচ্ছিল। তাৎক্ষণিকভাবে ভাঙন প্রতিরোধের জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় আজ দু’শ পার্কো ফেলা হয়েছে। চলাচল অব্যাহত রাখতে মহাসড়কের ভেঙ্গে যাওয়া স্থানে প্রায় ১৫ ফুট রাস্তা বালু ফেলে বৃদ্ধি করা হয়েছে।'

বাঁশের পার্কো ফেলার সময় উপস্থিত ছিলেন চিতলমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. বাবুল হোসেন খান, সাধারণ সম্পাদক পীযূষ কান্তি রায়, কলাতলা ইউপি চেয়ারম্যান শিকদার মতিয়ার রহমান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি অবনী মোহন বসু, মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এস এম এ শোয়েল, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম রিয়াদ মুন্সি প্রমুখ।



মন্তব্য