kalerkantho


সোনারগাঁ গার্মেন্টকর্মীর লাশ উদ্ধার

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০৩:২২



সোনারগাঁ গার্মেন্টকর্মীর লাশ উদ্ধার

প্রতীকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় রেবা আক্তার (১৮) নামে এক গার্মেন্টকর্মীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী রাসেলের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। 
 
স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে পুলিশ রেবার মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত রেবা রংপুর বদরগঞ্জ উপজেলার কিসমত ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামের আবদুর রশিদের মেয়ে। রাসেল একই এলাকার আয়ুব আলীর ছেলে। তাঁদের ছয় মাস আগে বিয়ে হয়। গত চার মাস যাবত্ তাঁরা সোনারগাঁ উপজেলার পুরান কাঁচপুর, উত্তরপাড়ার হেলাল মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। তাঁরা উভয়েই অনন্ত গার্মেন্টে চাকরি করেন। রেবার চাচা রুস্তম আলী পাশের রুমে থাকেন। গত এক মাস ধরে রেবার সঙ্গে রাসেলের সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিল না। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া লেগে থাকত বলে জানা গেছে। গত মঙ্গলবার ভোরে চাচা রুস্তম মিয়া কাজে যাওয়ার জন্য রেবাকে অনেক ডাকাডাকি করেন। সাড়া না পেয়ে বাড়িওয়ালা ও আশপাশের লোকজন দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে রেবাকে মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে।
 
স্থানীয় লোকজন রেবার মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে  সোনারগাঁ থানার উপপরিদর্শক ইমানুল মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। সোনারগাঁ থানার ওসি মোর্শেদ আলম কালের কণ্ঠকে জানান, মৃত্যুর প্রকৃত কারণ অনুসন্ধানে কাজ করছে পুলিশ।


মন্তব্য