kalerkantho


স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা: মাদারীপুরে স্বামীসহ তিনজনের মৃত্যুদণ্ড

মাদারীপুর প্রতিনিধি   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২১:৫৯



স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা: মাদারীপুরে স্বামীসহ তিনজনের মৃত্যুদণ্ড

মাদারীপুর সদর উপজেলার মাদ্রা গ্রামের শাহজাদী বেগম নামে এক গৃহবধুকে দাম্পত্য কলহের জের ধরে স্বামী তার দুই বন্ধুকে সাথে নিয়ে স্ত্রীকে গলাকেটে নৃশংসভাবে খুনের দায়ে স্বামীসহ ৩ জনকে ফাঁসির আদেশ দেওয়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে মাদারীপুরের বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ শরীফ উদ্দিন আহমেদ এ রায় দেন। রায়ে দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো, শহরের রকেট বিড়ি এলাকার খালেক সরদারের ছেলে বাবু সরদার, শুকুর খার ছেলে মো. উজ্জল খা ও মাজেদ চৌকিদারের ছেলে নাইম চৌকিদার।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর পৌরসভার রকেট বিড়ি এলাকার খালেক সরদারের ছেলে বাবু সরদারের সাথে মাদ্রা এলাকার শাহ আলম খানের মেয়ে শাহজাদী আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক হয়। এই সম্পর্কে সূত্রে ধরে তারা বিয়ে করেন। বিয়ের পর কিছুদিন সর্ম্পক ভালো থাকলেও পরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ লেগেই থাকে।

২০১৩ সালে ২৮ জুলাই স্বামী বাবু সরদার তার বন্ধু নাইম চৌকিদার, উজ্জল খা মিলে স্ত্রী শাহজাদী বেগমকে বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে আড়িয়াল খাঁ নদের পাড়ে নিয়ে যায়। সেখানে গিয়ে তারা তিনজন মিলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে শাহাজাদীকে গলাকেটে নৃশংসভাবে খুন করে।

এ ঘটনায় নিহতের মা নাছিমা বেগম বাদী হয়ে মামলা করলে পুলিশ মাদারীপুরের বাহেরচর কাতলা গ্রামের জনৈক খালেকের বাড়ি সামনে ধনচে ক্ষেতের মধ্যে মাথাবিহীন শাহাজাদীর লাশ এবং পরে অদুরে তার কাটা মাথা উদ্ধার করে।

দীর্ঘ তদন্ত শেষে এসআই সুলতান মাহমুদ এবং এসআই সিরাজুল ইসলাম দণ্ডপ্রাপ্তদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মূল আসামি বাবু সরদার আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে হত্যার লোমহর্শক বর্ণনা দেয়। আদালতের বিচারক উপযুক্ত প্রমাণাদি শেষে এ রায় প্রদান করেন।

মাদারীপুর জজ কোর্টর পিপি এডভোকেট ইমরান লতিফ বলেন, হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে শাহজাদীর স্বামীসহ তিনজনকে আদালত মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন। রায়ের সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি উজ্জ্বল খা পলাতক ছিল।  



মন্তব্য