kalerkantho


অভয়নগরে ১১ লাখ টাকার ব্যাটারিসহ পিকআপ জব্দ, আটক ৩

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৫৮



অভয়নগরে ১১ লাখ টাকার ব্যাটারিসহ পিকআপ জব্দ, আটক ৩

ছবি: কালের কণ্ঠ

অভয়নগর থানা পুলিশের পৃথক তিনটি অভিযান চালিয়ে তিনজনকে আটক করেছে। জব্দ করেছে প্রায় ১১ লাখ টাকার মোবাইল টাওয়ারের ব্যাটারি, মোবাইল ফোন ও একটি পিকআপ। আটক তিনজনের বিরুদ্ধে পৃথক তিনটি মামলা দায়ের হয়েছে। 

অভয়নগর থানা সূত্রে জানা গেছে, ওসি আলমগীর হোসেনের নেতৃত্বে এস আই গোলাম রসুলসহ সঙ্গীয় ফোর্স গতকাল সোমবার সকাল আনুমানিক ৯টায় উপজেলার প্রেমবাগ ইউনিয়ননের একটি পেট্রল পাম্পের সামনে থেকে নওয়াপাড়া পৌরসভার বুইকরা গ্রামের নূর ইসলামের ছেলে আন্তঃ জেলা ব্যাটারি চোর চক্রের হোতা আল আমিনকে (২৬) আটক করা হয়। এ সময় পুলিশ পিকআপের (ঢাকা মেট্রো ল-১৬-৭৭১৬) চালকের বেশে চোর চক্রের হোতা আল আমিনকে গত ২৩ সেপ্টেম্বর দিবাগত গভীর রাতে প্রেমবাগ পেট্রল পাম্প সংলগ্ন রবি ও বাংলালিংক টাওয়ার থেকে চুরিকৃত ২০ পিস ব্যাটারি এবং পিকআপটিকে জব্দ করে থানায় নিয়ে আসে। ব্যাটারিগুলোর বাজার মূল্য প্রায় ১১ লাখ টাকা। এ ঘটনায় রাতে অভয়নগর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

দিনের অপর অভিযান চলে পৌরসভার জগবাবুর মোড় নামক স্থানে। গত ১৩ সেপ্টেম্বর বুইকরা গ্রামের জগবাবুর মোড় এলাকায় কিউ এম বাহাদুরের বাড়ির ভাড়াটিয়া আবুল হোসেন শেখের মেয়ে এনজিও কর্মী রেক্সোনা খাতুনের লাভা এন্ড্রইড মোবাইল (যার মূল্য-প্রায় ১০ হাজার টাকা) চুরি হয়। যে অভিযোগের ভিত্তিতে আজ সোমবার আনুমানিক বেলা ১২টায় জগবাবুর মোড়ে অভিযান চালিয়ে চুরিকৃত মোবাইল ফোনসহ একাধিক মামলার আসামি মিলন ওরফে বোমা মিলনকে আটক করা হয়। ৩৮০ পিসি ধারায় অভয়নগর থানায় মিলনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। 

সোমবার সন্ধ্যায় অপর ঘটনায় উপজেলার হরিশপুর গ্রামের মুড়ো বটতলার আ. সালামের ছেলে মো. হাসানের নিকট চাঁদা, ছিনতাই ও হত্যার উদ্দেশে গলাই চাকু ধরার অভিযোগে একই গ্রামের ২টি হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি আল আমিন ওরফে আলাই ফারাজীকে (২৫) আটক করে পুলিশ। আটকের বিরুদ্ধে অভয়নগর থানায় দ্রুত বিচার আইনে মামলা দায়ের হয়েছে। গত ২৩ সেপ্টেম্বর দিবাগত গভীর রাতে আলাই ও তার সহযোগী রবিউল ইসলামের ছেলে রাজু (২২) হাসানকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও নগদ ৭ হাজার ৩৫০ টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং জবাই করে হত্যার চেষ্টা চালায়। সঙ্গে সঙ্গে মোটা অংকের চাঁদাও দাবি করে তারা। 

তিনটি পৃথক অভিযান, আসামি আটক ও মালামাল জব্দের ব্যাপারে অভয়নগর থানার ওসি আলমগীর হোসেন বলেন, জনগণের জানমালের নিরাপত্তা দিতে পুলিশ বদ্ধপরিকর। যেখানেই অপরাধ সেখানেই পুলিশ। আটক তিনজন আসামির বিরুদ্ধে পৃথক তিনটি মামলা দায়ের হয়েছে। চুরিকৃত মালামালও উদ্ধার করা হয়েছে। আসামিদের যথা সময়ে কারাগারে প্রেরণ করা হবে।



মন্তব্য