kalerkantho


কালোবাজারে চাল বিক্রির অভিযোগে ডিলার আটক

নড়াইল প্রতিনিধি   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২১:৩৪



কালোবাজারে চাল বিক্রির অভিযোগে ডিলার আটক

হতদরিদ্রদের ১০ টাকা দরে সরকার নির্ধারিত ৩০ কেজি চালের পরিবর্তে ২৫কেজি চাল ৩’শ টাকায় বিক্রি করায় নড়াইলের একজন ডিলারকে আটক করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। আটককৃত ডিলারের নামে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করা হয়েছে। কালিয়ার পেড়লী ইউনিয়নের ঐ ডিলারের নাম লায়েক শেখ।

আজ বুধবার দুপুরে চাল বিক্রিকালে কালিয়ার ইউএনও মো. নাজমুল হুদা তাকে আটক করেছেন।

পুলিশ ও সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা যায়, হত দরিদ্রদের জন্য সরকার প্রদত্ত ১০ টাকা মূল্যের চাল বিক্রির জন্য উপজেলার পেড়লী ইউনিয়নে ৯৬০ জন কার্ডধারীর জন্য দুইজন ডিলার নিয়োগ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪৮৫ জন কার্ডধারীর কাছে চাল বিক্রির জন্য পেড়লী বাজারের লায়েক শেখকে ও ৪৭৫ জন কার্ডধারীর কাছে চাল বিক্রির জন্য খড়রিয়া বাজারে মফিজুর রহমানকে ডিলার নিয়োগ করা হয়েছে।

কতৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী চলতি মাসের জন্য বরাদ্দকৃত চাল ৩০ কেজি হারে ব্যাগজাত করে ডিলারদের দেওয়া হয়। তবে পেড়লী ইউপির ওই দুই ডিলারের বিরুদ্ধে ব্যাগ কেটে চাল বের করে কালোবাজারে বিক্রি ও কার্ডধারীকে ৩০০ টাকায় ৩০ কেজির স্থলে ২৫ কেজি করে চাল দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। পরে ওইদিন চাল বিক্রিকালে দুপুরে কালিয়ার ইউএনও পেড়লী বাজারে অবস্থিত লায়েকের দোকানে অভিযান চালিয়ে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে তাকে আটক করেন। 

কালিয়ার ইউএনও মো. নাজমুল হুদা বলেছেন, সরকার নির্ধারিত চালের ব্যাগ কেটে কালোবাজারে বিক্রি ও কার্ডধারীদের কাছে ৩০০ টাকায় ৩০কেজির স্থলে ২৫কেজি হারে চাল বিক্রি করায় লায়েক শেখকে আটক করা হয়েছে এবং বিশেষ ক্ষমতা আইরে মামলা করা হয়েছে।

তবে কালোবাজারে বিক্রিত বা বিক্রির জন্য মজুদ কোনো চাল তিনি জব্দ করতে পারেননি। 



মন্তব্য