kalerkantho


খাস জমি দখলে নিতে গিয়ে গ্রামবাসীর রোষানলে এসি ল্যান্ড

মেহেরপুর প্রতিনিধি   

২১ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০৬



খাস জমি দখলে নিতে গিয়ে গ্রামবাসীর রোষানলে এসি ল্যান্ড

এসি ল্যান্ডের গাড়ি আটকিয়ে গ্রামবাসীর বিক্ষোভ। ছবি: কালের কণ্ঠ

সরকারি জমি দখলে নিয়ে সাইনবোর্ড লাগানোর সময় গ্রামবাসীর রোষানলে পড়েন মেহেরপুরের মুজিবনগরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মেজবাহ উদ্দীন। সোমবার বিকালে মুজিবনগর উপজেলার ভবেরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিলে গ্রামবাসীরা একত্রিত হয়ে এসি ল্যান্ডের গাড়ি আটকে দেয়। পড়ে মুজিবনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সহকারী কমিশনার মেজবাহ উদ্দিন জানান, মুজিবনগর উপজেলা সহকারী (ভূমি) মেজবাহ উদ্দিন ভবেরপাড়া গ্রামে ভবের পাড়া মৌজার ১ নম্বর খাস খতিয়ানের ১৭৬৭ দাগের ১৫ শতক একটি জমি দখলে নেওয়া হয় গত রবিবার। সেখানে লাল পতাকাও টাঙিয়ে দেওয়া হয়। 

পরে সোমবার বিকালে ওই জমিতে তফসিল সাইনবোর্ড লাগাতে গেলে মসজিদের পক্ষ থেকে বেলাল হোসেন ও তার স্ত্রী ফুলঝুড়ি বাধা দেন। এ সময় সরকারি কাজে বাধা না দেওয়ার কথা বললে তারা মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিলে এলাকার নারী-পুরুষ একত্রিত হয়ে তাঁর সরকারি গাড়ি আটকে দেয়। 

এ সময় এসি ল্যান্ড তাদের গাড়ি ছেড়ে দেওয়ার কথা বললে গ্রামবাসীরা তাতে কর্ণপাত করে না। পরে তিনি গাড়ি থেকে নেমে উপজেলা নিজ কার্যালয়ে ফিরে যান। খবর পেয়ে মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল হাসেমের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম সেখান গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গাড়ি উদ্ধার করেন।

এসি ল্যান্ড মেজবাহ উদ্দিন আরো জানান, সরকারি খাস খতিয়ানের জমি কোনো প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া যায় না। এই জমি শুধুমাত্র আবেদনের প্রেক্ষিতে ভূমিহীনদের মধ্যে বন্দোবস্ত দেওয়া হয়।

গ্রামবাসীরা জানান, ১৯৪০ সাল থেকে ১৫ শতক ওই জমি মসজিদের দখলে রয়েছে। ওখানে একটি ডোবা ছিল। সেটি মসজিদের টাকা খরচ করে মাটি দিয়ে ভরাট করা হয়েছে। এখন জোর করে এটিকে দখলে নেওয়া হচ্ছে। 

মুজিবনগর থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল হাশেম জানান, গ্রামবাসীরা ভুল বুঝে এসি ল্যান্ডের গাড়ি আটকে ছিল। আমরা সেখানে গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। পরে সেখান থেকে গাড়িটি উদ্ধার করা হয়েছে। 



মন্তব্য