kalerkantho


শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হয়

বেনাপোল (যশোর) সংবাদদাতা   

২০ আগস্ট, ২০১৮ ২৩:৪০



শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হয়

ছবি: কালের কণ্ঠ

মহান মুক্তিযুদ্ধের ৭নং সেক্টরের অধীনে যুদ্ধকালীন কমান্ডার আলহাজ আব্দুল মাবুদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার মানেই উন্নয়নের সরকার। শেখ হাসিনার সরকার যখনি ক্ষমতায় আসে তখনি দেশের উন্নয়ন হয়। আমুল পরিবর্তন আসে ব্যবসা বাণিজ্য ও শ্রম সংস্থানে। উন্নয়নের এ ধারাকে অব্যাহত রাখতে হলে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। শক্তিশালী করতে হলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করতে হবে। জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করতে হবে। তবেই আগামীতে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের জন্য শক্তিশালী হবে। 

আজ সোমবার বিকালে যশোরের শার্শা উপজেলার গোগা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মাসব্যাপী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদৎবার্ষিকী উপলক্ষে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। 

তিনি আরো বলেন, ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সাড়া দিয়ে আমরা দেশকে শত্রুমুক্ত করতে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলাম তাই দেশ শত্রমুক্ত হয়ে স্বাধীন হয়েছিল। তাই আসুন বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে যারা লালন করেন কেবল তারাই শেখ হাসিনার ডাকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কা প্রতীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করার আহবান জানান। আওয়ামী লীগের অস্তিত্বকে টিকিয়ে রাখতে হলে তৃণমুল নেতাকর্মীদের হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। 

গোগা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শরিফ উদ্দীনের সভাপতিত্বে কালিয়ানি মাদরাসা মাঠে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আব্দুল মান্নান মিন্নু, উলাশী ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ শহিদুল আলম, শার্শা ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ কবীর উদ্দীন তোতা, নিজামপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও প্রভাষক আলিম রেজা বাপ্পি, কায়বা ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন বাবলু, প্রভাষক মনিরুল হাসান সোনা, সাবেক উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আমেনা খাতুন, ফারহানা ইয়াসমিন ঐশ্যি, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হাই, ডাক্তার সাধন কুমার, সিদ্দিকুর রহমান, আবু তাহের, রিজাউল ইসলাম রেজা প্রমুখ।



মন্তব্য