kalerkantho


ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগ

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি    

১৮ আগস্ট, ২০১৮ ২১:২৮



নেত্রকোনার কলমাকান্দায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটী ইউপি চেয়ারম্যান মো. রুবেল ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাতে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মো. আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে কলমাকান্দা থানায় তাঁর বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়নে ২ হাজার ৩৫৫ জন ভিজিএফ কার্ডধারী রয়েছেন। ঈদ উপলক্ষ্যে ওই কার্ডধারীদের মধ্যে বিতরণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্ধ থেকে ৪৭ মেট্রি কটন ১০০ কেজি চাল বরাদ্ধ দেওয়া হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে কৈলাটী ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ কার্ডধারীদের মধ্যে ওই চাল বিতরণের সময়সূচি নির্ধারিত ছিল। কিন্তু এ বিষয়ে এলাকায় প্রচারণা কম চালানো হয়। এর ফলে ভিজিএফ কার্ডধারীদের উপস্থিতিও ছিল কম। ওই ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান মো. রুবেল ভূঁইয়া সরকারি গোদাম থেকে চাল উত্তোলন করে কিছু চাল বিতরণ করলেও ৫ মেট্রিক টন ৪০ কেজি চাল বিতরণ না করেই তা ইউনিয়ন পরিষদে রেখে আত্মসাতের চেষ্টা করেন তিনি। এ ঘটনার খবর পেয়ে ওইদিন(বৃহস্পতিবার) রাত ১১টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফুজ্জামান ওই চাল ইউনিয়ন পরিষদে জব্দ করে তা সিলগালা করেন। পরে তাঁরই নির্দেশে শুক্রবার রাতে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মো. আশাদুজ্জামান বাদী হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান মো. রুবেল ভূঁইয়াসহ এর সাথে জড়িত অজ্ঞাত আরো ৫-৭ জনকে আসামি করে কলমাকান্দা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান মো. রুবেল ভূঁইয়া তাঁর বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, অনেক কার্ডধারীই চাল নিতে না আসায় তাদের নামে বরাদ্ধকৃত ওই চাল পরবর্তীতে বিতরণ করার জন্য পরিষদের গোদামেই রাখা হয়েছিল। 

এ ঘটনায় মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে কলমাকান্দা থানার ওসি একে এম মিজানুর রহমান বলেন, ইউপি চেয়ারম্যানসহ অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলায় তদন্ত স্বাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফুজ্জামান বলেন, চাল বিতরণে সব কিছুতেই গড়মিল পাওয়া গেছে। ২ হাজার ৩৫৫ জন ভিজিএফ কার্ডধারীর মধ্যে বিতরণের মাস্টার রোলে মাত্র ১ হাজার ১৭২ জন কার্ডধারীর মাঝে চাল বিতরণের প্রমাণ পাওয়া গেছে। এ ছাড়াও পরিষদের গোদাম থেকে ৬ মেট্রিক টন চাল জব্দ করা হয়েছে। 

  



মন্তব্য