kalerkantho


নির্যাতিত পরিবারের অভিযোগ

ওসির অপকর্ম নিয়ে অভিযোগ : বাড়িতে হামলা, গৃহবধূকে মারপিট

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম   

১৮ আগস্ট, ২০১৮ ২০:২৪



ওসির অপকর্ম নিয়ে অভিযোগ : বাড়িতে হামলা, গৃহবধূকে মারপিট

কুড়িগ্রামের রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর আলমের নানা অপকর্ম আর আটক বাণিজ্যের অভিযোগ করায় ক্ষিপ্ত হয়ে সুরুজ্জামান নামের এক নিরীহ ব্যক্তির বাড়িতে হামলা ভাঙচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে পুলিশ। এ সময় ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে পুলিশ তল্লাশির নামে আসবাবপত্র তছনছ ও বাড়ির গৃহবধূকে মারপিট করেছে। ঘরে থাকা একটা মোটরসাইকেলও নিয়ে যায় পুলিশ। সাংবাদিকদের কাছে এমন অভিযোগ করলেন নির্যাতিত পরিবারের সদস্যরা। আজ শনিবার ভোররাতের দিকে উপজেলার ধনারচর চরের গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার ধনারচর চরের গ্রামের ছ’মিল ব্যবসায়ী সুরুজ্জামান গত মে মাসে ওসি জাহাঙ্গীর আলমের অপকের্মর চিত্র তুলে ধরে পুলিশের মহাপরিদর্শক বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওসি জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল বিনা কারণে ওই বাড়িতে হামলা চালিয়ে ঘরের দরজা ভাঙচুর করে। এ সময় পুলিশ বাড়ির গৃহবধূ রাশেদা বেগম ও আকতারা খাতুনকে মারপিট করে।

বাড়ির মালিক সুরুজ্জামান অভিযোগ করে বলেন, 'ওই রাতে আমি বাড়িতে ছিলাম না। থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম বিনা কারণে আমার বাড়িতে তল্লাশির নামে হামলা চালিয়েছে। আমার স্ত্রী ও ছেলের বউকে মারপিটও করেছে। এর আগে আমাকে মাদক মামলা ও ক্রস ফায়ারের হুমকি দিয়েছিল ওসি।'

এ ঘটনা প্রসঙ্গে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান বঙ্গবাসী ও সংশ্লিষ্ট এলাকা যাদুরচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরবেশ আলী জানান, আমরাও শুনেছি যে পুলিশ বিনা কারণে সুরুজ্জামানের বাড়িতে হামলা ভাঙচুর করেছে। পুলিশ যদি জনগণের বন্ধু হয় তাহলে এ ধরনের পুলিশকে কি বলব তা আমরা খুঁজে পাচ্ছি না।

এদিকে এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, 'মাদকের খবরে ওই বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছিল। ঘরের দরজা ভাঙচুর ও বাড়ির লোকজনকে মারপিটের কোনো ঘটনা ঘটেনি।'
  



মন্তব্য