kalerkantho


নীলফামারীতে জমে উঠেছে কোরবানি পশুর হাট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ আগস্ট, ২০১৮ ০৯:৪০



নীলফামারীতে জমে উঠেছে কোরবানি পশুর হাট

নীলফামারী জেলায় জমে উঠেছে কোরবানির পশুর হাট। বিভিন্ন হাটবাজারে ভারতীয় গরুর আমদানি না থাকায় কদর বেড়েছে দেশী গরুর।

জেলা প্রাণি সম্পদ বিভাগের সূত্র মতে, জেলায় ছোটবড় মিলে গরু, ছাগল, ভেড়ার খামার রয়েছে ২৩ হাজার ৬৬০টি। এর মধ্যে গরুর ১৭ হাজার ৬০০টি, ছাগল পাঁচ হাজার ৪৩০ ও ভেড়া ৬৩০ টি। এর মধ্যে অনেকে বড় আকারে এবং অনেকে বাড়িতে ছোট আকারের খামারে এসব পশু পালন করছেন।

জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. মোনাক্কা আলী বলেন, এবারে যে পরিমাণ সুস্থ্য পশু মজুত আছে তাতে কোরবানির পশু সংকটের কোনো আশঙ্ক নেই। প্রতিটি হাটবাজারে জেলা প্রাণি সম্পদের পক্ষে পশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হচ্ছে। পশু বিক্রি করে পালনকারীরা যে দাম পাচ্ছেন তাতে লোকসান হবে না।

তিনি জানান, কোরবানির ঈদ উপলক্ষে জেলায় ৬১ হাজার ৬৯৯টি গবাদি পশু প্রস্তত হয়েছে। এর মধ্যে গরু ৪৭ হাজার ৯৯৫ ও ছাগল, ভেড়া ১৩ হাজার ৭০৪ টি। ২০১৭ সালে গরু, ছাগল, ভেড়া মিলে ৬১ হাজার ৬৬৭ টি পশু কোরবানি হয়েছে।

৫৬ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেল কাজী আবুল কালাম আজাদ বলেন, বাজারে ভারতীয় গরু গত বারের তুলনায় নগণ্য, অর্থাৎ নেই বললে চলে। আমরা ঈদ উপলক্ষে সীমান্ত এলাকা কঠোর নজরদারীতে রেখেছি। আশা করি ভারতীয় গরু ছাড়াই দেশীয় গরু দিয়ে কোরবানি সম্পন্ন হবে।



মন্তব্য