kalerkantho


দুধ উৎপাদনের জন্য বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ৭০ মহিষ আমদানি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ আগস্ট, ২০১৮ ২৩:৫০



দুধ উৎপাদনের জন্য বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ৭০ মহিষ আমদানি

ছবি: কালের কণ্ঠ

যশোরের বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে ৭০টি ভারতীয় মহিষের একটি চালান আমদানি করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ৪টি ট্রাকে ৩৫টি বাছুর ও ৩৫টি বড় মহিষ আসে ভারতের পেট্রাপোল বন্দর হয়ে বেনাপোল বন্দরে। মহিষগুলো ভারতের হরিয়ানা রাজ্য থেকে আমদানি করা হয়েছে। 

কাস্টমস ও বন্দর সূত্রে জানা গেছে, সিরাজগঞ্জের মিল্কভিটা কোম্পানী দুধ উৎপাদনের জন্য ৩৫টি মহিষ ও ৩৫টি মহিষের বাছুর (প্রজনন) আমদানির জন্য দরপত্র দিলে ঢাকার আমদানিকারক জেনটিক্স ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড এই মহিষগুলো ভারত থেকে আমদানি করেন (যার এলসি নম্বর-২০৯৭১৮০১১৪০১)। ভারতের রফতানিকারক প্রতিষ্ঠান হলো, জে কে, এন্টারপ্রাইজ। 

বেনাপোলের হটলাইন কার্গো ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি সিএন্ডএফ এজেন্ট আমদানিকৃত মহিষগুলো বেনাপোল কাস্টমস হাউজ থেকে ছাড় নেওয়ার জন্য মঙ্গলবার বিল অব এন্ট্রি দাখিল করে। যার বিল অব এন্ট্রি নং-৫৪০৬৬। মহিষের আমদানি মূল্য ঘোষণা দেয়া হয়েছে ৫৭ হাজার ৫৭৫ মার্কিন ডলার। যার বাংলাদেশি টাকায় মূল্য দাঁড়ায় ৪৮ লাখ ৩৬ হাজার ৩০০ টাকা। এই মহিষের কোন আমদানি শুল্ক নেই। তবে প্রাণী সম্পদ বিভাগের ছাড়পত্র নিতে হবে। 

শার্শা উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা জয়দেব কুমার সিংহ জানান, মহিষগুলো সিরাজগঞ্জের মিল্ক ভিটায় নিয়ে যাওয়া হবে। প্রাথমিক ভাবে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে মহিষগুলো ভাল পাওয়া গেছে। প্রাণী সম্পদ বিভাগের সরকারি শুল্ক আদায় করে যথাযথ ভাবে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। 

বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস কার্গো শাখার রাজস্ব কর্মকর্তা মহব্বত সোবহান মহিষ আমদানির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মহিষগুলো বেনাপোল কাস্টমস হাউজ থেকে খালাস নিতে হটলাইন কার্গো ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড নামের একটি সিএন্ডএফ এজেন্ট প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দাখিল করেছেন। তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে শুল্কায়ন করার পর খালাস দেয়া হবে। 



মন্তব্য