kalerkantho


দেড় যুগ না হতেই ভাঙা হচ্ছে জেলা জজকোর্ট রেকর্ড ভবন

ভোলা প্রতিনিধি   

২২ জুলাই, ২০১৮ ২২:১৫



দেড় যুগ না হতেই ভাঙা হচ্ছে জেলা জজকোর্ট রেকর্ড ভবন

ভোলায় দেড় যুগ না হতেই নতুন চীপ জুডিশিয়াল আদালত ভবন করার জন্য ভেঙে ফেলা হচ্ছে জেলা জজকোর্ট রেকর্ড ভবন। সরকারের সঠিক পরিকল্পনার অভাবে গচ্ছা যাচ্ছে প্রায় কোটি টাকা। ভোলা চীপ জুডিশিয়াল আদালত চত্বরে অবস্থিত জজকোর্ট রেকর্ড ভবন ভাঙার কাজ ইতিমধ্যে শুরু করে দিয়েছে বহুতল চীপ জুডিশিয়াল আদালত ভবন নির্মাণকারী ঠিকাদার। ২০০৪-০৫ অর্থবছরে প্রতি ফ্লোরে ৯৯৮ স্কোয়ার মিটারের দোতলা বিশিষ্ট প্রায় কোটি টাকা ব্যয়ে এ রেকর্ড ভবনটি নির্মাণ করা হয়েছিল।
  
প্রায় ৪৩ কোটি টাকা ব্যয়ে বহুতল চীপ জুডিশিয়াল আদালত ভবনের নির্মাণ কাজের টেন্ডার প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে সম্পূর্ণ হয়েছে। পাইলিং এর কাজ সমাপ্তির পথে। তাই এখন জজকোর্ট রেকর্ড ভবন ভাঙার কাজ চলমান। এর ফলে সরকাকে এক উন্নয়নের জন্য অন্য এক উন্নয়নের জলাঞ্জলি দিতে হচ্ছে। কিন্তু আবার আরো একটি নতুন একটি রেকর্ড ভবন তৈরি করতে হবে সরকারকে। আর এর জন্য সরকারে সঠিক পরিকল্পনার অভাবকে দায়ী করেছেন বিশিষ্টজন।

এ বিষয়ে ভোলার কয়েকজন শিক্ষানুরাগী ও বিশিষ্টজন কালের কণ্ঠকে বলেন, পাশেই আরো জায়গা ছিল, নতুবা নতুন জায়গা অধিগ্রহণ করে সেখানে নতুন চীপ জুডিশিয়াল ভবন করা যেতো।

এ ব্যাপারে ভোলা জেলা গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলি বদিউল আলম কালের কন্ঠকে বলেন, ২০০৪ সালের সময় চীপ জুডিশিয়াল আদালত ও জেলা দায়রা জজ আদালত একই সাথে থাকায় আমরা সে সময় এ ভবন নির্মাণ করেছি। এখন বহুতল চীপ জুডিশিয়াল আদালত ভবন নির্মাণ করার জন্য একমাত্র এই স্থান ছাড়া অন্য কোনো স্থান না থাকায় এটা ভাঙা ছাড়া উপায় নেই। 



মন্তব্য