kalerkantho


ঘাতকের স্বীকারোক্তি

পরকীয়ায় জড়িত সন্দেহে ফিল্মি কায়দায় স্ত্রীকে খুন

খুলনা অফিস    

১৯ জুলাই, ২০১৮ ১১:৩৯



পরকীয়ায় জড়িত সন্দেহে ফিল্মি কায়দায় স্ত্রীকে খুন

খুলনায় পরকীয়ায় জড়িত সন্দেহে গৃহবধূ নূপুর বেগমকে (২২) ফিল্মি কায়দায় হত্যা করা হয়। এ বিষয়ে আদালতে দেওয়া অভিযুক্ত স্বামী ওমর ফারুকের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে হত্যার লোমহর্ষক বর্ণনা উঠে এসেছে।

মহানগরীর খানজাহান আলী থানার মশিয়ালী পাড়িয়াডাঙ্গা গ্রামে গত সোমবার রাতে এ হত্যার ঘটনা ঘটে। আর গত মঙ্গলবার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আতিকুস সামাদের আদালতে ওমর ফারুক ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। চার বছর আগে বিয়ে হওয়া এই দম্পতির ১৪ মাস বয়সী মো. আব্দুল্লাহ নামে একটি সন্তান রয়েছে। দুই-তিন মাস ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ দেখা দেয়।

আদালতে জবানবন্দিতে ওমর ফারুক বলেন, “স্ত্রীর পরকীয়ার কারণে সংসার বিষিয়ে উঠেছিল। অনেক বুঝিয়েও তাকে ওই পথ থেকে ফেরানো যাচ্ছিল না। সে কারণেই তাকে হত্যার সিদ্ধান্ত নিই। পরিকল্পনা করে বাড়ির পাশে বাগানে একটি চায়নিজ কুড়াল রেখে আসি। রাত ৮টার দিকে স্ত্রীকে বলি, ‘চলো আমরা আজকে একটু বিদেশিগো মতো বাগানে গিয়া আনন্দ করি।’ সে তাতে রাজি হয়। তাকে সেখানে নিয়ে গামছা দিয়ে দুই হাত ও পরনের শাড়ি দিয়ে মুখ ও চোখ বেঁধে উপুড় করে মাটিতে শুয়ে পড়তে বলি। ও মাটিতে শুয়ে পড়লে কুড়াল দিয়ে ঘাড়ে চারটি কোপ দিই। পরে বাসায় চলে আসি। বাড়িতে ভালো লাগছিল না। পরে অনেক রাতে ঘটনা অন্যদের জানাই।’ 



মন্তব্য