kalerkantho


কোটা সংস্কার আন্দোলনে হামলার প্রতিবাদে ময়মনসিংহে সিপিবির মানববন্ধন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ জুলাই, ২০১৮ ১৯:১৯



কোটা সংস্কার আন্দোলনে হামলার প্রতিবাদে ময়মনসিংহে সিপিবির মানববন্ধন

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি(সিপিবি) ময়মনসিংহ জেলা কমিটির নারী সেলের উদ্যোগে ১৮ জুলাই বিকাল ৫টায় শহরের শহীদ ফিরোজ-জাহাঙ্গীর চত্বরে কোটা সংস্কার আন্দোলনে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উপর হামলা-লাঞ্ছনার প্রতিবাদে এক মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসময় কোটা বাতিল না করে যৌক্তিক সংস্কারের দাবি জানান সিপিবির নারী সেলের নেতৃবৃন্দ।

কর্মসুচিতে কোটা সংস্কার আন্দোলনের প্রতি সংহতি জানিয়ে বক্তারা বলেন, 'শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক আন্দোলনে সরকারের ভূমিকা অত্যন্ত নিন্দনীয়। যে কোনো ন্যায্য দাবি আদায়ের জন্য আন্দোলন করতে গেলে সেখানে পুলিশ দিয়ে হামলা করে, মামলা করে, নির্যাতন করে, রিমান্ডে নিয়ে, ভয় দেখিয়ে, হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে,ক্ষমতাসীন ছাত্র সংগঠন লেলিয়ে আন্দোলন থামিয়ে দেওর চেষ্টা ফ্যাসিবাদী প্রবণতারই বহিঃপ্রকাশ।'

বক্তারা আরও বলেন, 'আন্দোলনে নারীদের যেভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে, শিক্ষার্থীদের পেটানো হচ্ছে। শিক্ষকদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এসব কোনো সভ্য রাষ্ট্রের চরিত্র হতে পারে না। মেরুদন্ডহীন ঢাবি ভিসির অবিলম্বে পদত্যাগ করতে হবে। শিক্ষার্থীদের নির্যাতনে যারা জড়িত, তাদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।'

'মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যখন জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে শিক্ষার্থীদের স্বার্থের বিপরীতে বক্তব্য দেন তখন আমরা আহত হই। যখন বলেন ৩৮ টাকার খাবার আর ১৫ টাকার সিট ভাড়া দিয়ে আন্দোলন করা হচ্ছে-তখন স্বভাবতই প্রশ্ন জাগে, এই রাষ্ট্র কি কোনো একক ব্যক্তির টাকায় চলে নাকি জনগণের টাকায় চলে? প্রধানমন্ত্রীর এ ধরণের বক্তব্য প্রত্যাহারের আহবান জানাই। পাশাপাশি যে সকল শিক্ষার্থীকে জেলে নেওয়া হয়েছে, রিমান্ডে নেওয়া হচ্ছে- অবিলম্বে তাদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করছি।'

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতিকে ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তাগণ আরও বলেন, 'যেকোনো যৌক্তিক দাবির প্রতি কমিউনিস্ট পার্টির সমর্থন থাকবে এবং এর জন্য পার্টি সবসময় রাজপথে থেকে বিজয় অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত লড়াই সংগ্রাম চালিয়ে যাবে।'

ঘণ্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে নারীনেত্রী কমরেড ফেরদৌস আরা মাহমুদা হেলেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা সিপিবির সভাপতি কমরেড এমদাদুল হক মিল্লাত, সিপিবি নারী সেলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা মহিলা পরিষদের সভাপতি কমরেড মনিরা বেগম অনু, জেলা সিপিবি সম্পাদকমন্ডলীর নেতা কমরেড মোকছেদুর রহমান জুয়েল, সিপিবি শহর কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড সুশান্ত দেবনাথ খোকন, যুব ইউনিয়ন জেলা সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাবিব তালুকদার রবীন এবং জেলা ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি তন্ময় পাল। মানবন্ধন পরিচালনা করেন জেলা নারী সেলের আহবায়ক কমরেড লীলা রায়।



মন্তব্য