kalerkantho


ট্রিপল নাইনে ফোন দিয়ে মাগুরায় অভিযুক্ত আটক

মাগুরা প্রতিনিধি    

১৮ জুলাই, ২০১৮ ১৭:৪৬



ট্রিপল নাইনে ফোন দিয়ে মাগুরায় অভিযুক্ত আটক

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বিরোধপূর্ণ জমিতে চাষাবাদের অপচেষ্টাকালে পুলিশ সদর দপ্তরের ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে মিজানুর রহমান (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে পুলিশে দিলেন আনোয়ার জাহিদ নামে ভুক্তভোগী এক ব্যক্তি। তাদের দুজনেরই বাড়ি মাগুরা সদর উপজেলার চাঁদপুর গ্রামে। 

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী আনোয়ার জাহিদ জানান, দীর্ঘদিন ধরে তাদের পারিবারিক সম্পত্তি জবর দখলের চেষ্টা করছে মিজানুর রহমান। এ বিষয়ে মাগুরা সদর থানা ও সংশ্লিষ্ট আদালতে মামলা দায়ের করেন তারা। এই মামলায় আদালত আনোয়ার জাহিদদের পক্ষে রায় দেন। কিন্তু আদালতের ওই আদেশ অমান্য করে মিজানুর রহমান ও তার লোকজন জমি দখলের অপচেষ্টা অব্যাহত রাখে। যার প্রেক্ষিতে আনোয়ার জাহিদের পক্ষ থেকে মাগুরা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আবেদন করা হলে গত বছর আদালত প্রথমে ১৪৪ পরে ১৮৮ ধারায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে। কিন্তু এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মিজানুর রহমান ও তার লোকজন গতকাল মঙ্গলবার সদর উপজেলার ধলহরা গ্রামে নিষেধাজ্ঞা আরোপিত আনোয়ার জাহিদদের ৩২ শতক জমিতে জোরপূর্বক ধান লাগাতে যায়। এ সময় আনোয়ার জাহিদ বিষয়টি মাগুরা সদর থানাকে জানায়। কিন্তু সদর থানা থেকে এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ না নেওয়ায় বঞ্চিত হন আনোয়ার জাহিদ। 

তিনি আরো জানান, অন্যদিকে মিজানুর ও তার লোকজন আজ বুধবার সকালে ওই জমিতে আবার ধান লাগাতে যায়। এ সময় তিনি ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে পুলিশ সদর দপ্তরে জানালে সেখানকার নির্দেশে সদর থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে সকালে মিজানুর রহমানকে আটক করে। 

মিজানুর রহমানের আটকের বিষয়টি স্বীকার করে মাগুরা সদর থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম জানান, ঘটনার পুনরাবৃত্তি এড়াতে বিষয়টির শান্তিপূর্ণ সমাধানের চেষ্টা চলছে।



মন্তব্য