kalerkantho


নাটোরে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে স্কুলছাত্রীর বাল্য বিয়ে বন্ধ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ জুলাই, ২০১৮ ২৩:৫৯



নাটোরে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে স্কুলছাত্রীর বাল্য বিয়ে বন্ধ

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এর হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ের হাত থেকে রক্ষা পেল শাবনুর খাতুন  (১৭) নামের এক স্কুলছাত্রী। আজ মঙ্গলবার সন্ধায় উপজেলার পাঁকা ইউনিয়নের পাঁকা গ্রামে এ বিয়ে বন্ধ হয়। শাবনুর খাতুন ওই গ্রামের সাজদার রহমানের মেয়ে এবং পাঁকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। 

ইউএনও কার্যালয় ও স্থানীয় সূত্র জানায়, শাবনুর খাতুন এর বিয়ে পার্শ্ববর্তী চকগোয়াস গ্রামের হাসেম মৃধার ছেলে আলমগীর হোসেনের সঙ্গে ঠিক করেন তার পরিবারের লোকজন। মঙ্গলবার এ বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। সে উপলক্ষে কনের বাড়িতে বিয়ের আয়োজন চলছিল।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরিন বানু বিষয়টি জানতে পেরে স্থানীয় ইউপি সদস্য জালাল উদ্দিনকে বিয়ে বাড়িতে পাঠান। তিনি সেখানে গিয়ে কনের বাবা-মা এবং পরিবারের সকলকে বাল্য বিয়ের কুফল সম্পর্কে অবহিত করলে ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত তারা মেয়ের বিয়ে দিবে না বলে মুচলেকা দেন।



মন্তব্য