kalerkantho


কলমাকান্দায় ভাতিজা হত্যার দায়ে চাচা গ্রেপ্তার

হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি   

১৭ জুলাই, ২০১৮ ১৯:০০



কলমাকান্দায় ভাতিজা হত্যার দায়ে চাচা গ্রেপ্তার

নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার সারাকোণা গ্রামের কৃষক জুলহাস মিয়া হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় চাচা ছমেদ আলীকে (৭০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার ভোরে বারহাট্টা উপজেলার নৈহাটি এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে কলমাকান্দা থানা পুলিশ। পরে পুলিশ সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ধৃত ছমেদ আলীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে নেত্রকোনা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠিয়েছে।

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার পোগলা ইউনিয়নের সারাকোণা গ্রামের ছমেদ আলীর ছেলে কামরুল ইসলামের নেতৃত্বে ১০-১২ জন লোক ধারালো অস্ত্র নিয়ে তারই চাচা আব্দুল হাকিমের ছেলে কৃষক জুলহাস মিয়াসহ তার পরিবারের লোকজনের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে জুলহাস মিয়া ও তার বড় ভাই সেলিম মিয়াসহ ৪ জনকে গুরুতর আহত করে। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই রাতেই কৃষক জুলহাস মিয়া ও সেলিম মিয়াকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। পরদিন শুক্রবার বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জুলহাস মিয়ার মৃত্যু হয়। পরে এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই নিহতের বাবা আব্দুল হাকিম বাদী হয়ে তারই বড় ভাই ছমেদ আলী ও ভাতিজা সেলিম মিয়াসহ ১৮ জনকে আসামি করে কলমাকান্দা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে কলমাকান্দা থানার ওসি এ কে এম মিজানুর রহমান মিজান বলেন, মামলার হুকুমজারী আসামি ছমেদ আলীকে গ্রেপ্তার করে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে পাঠানো হয়েছে। তবে মামলার অন্যান্য আসামিরা এলাকার বিভিন্নস্থানে গা ঢাকা দিলেও তাদেরকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।



মন্তব্য