kalerkantho


টনসিলের অপারেশনে রোগীর মৃত্যু

অভিযুক্ত চিকিৎসকের শাস্তির দাবিতে আশুলিয়ায় মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

১২ জুলাই, ২০১৮ ১৯:৪৫



অভিযুক্ত চিকিৎসকের শাস্তির দাবিতে আশুলিয়ায় মানববন্ধন

আশুলিয়ায় টনসিলের অপারেশন করতে গিয়ে রোগী মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত চিকিৎসকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও হাসপাতাল বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন নিহতের স্বজন ও এলাকাবাসী। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের পলাশবাড়ী এলাকায় অভিযুক্ত মমতাজ উদ্দিন হাসপাতালের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। তিন সন্তানের জননী নিহত লাইলি আক্তার (৩২) আশুলিয়ার ডেন্ডাবর নতুনপাড়া এলাকার মুদি দোকানি আবুল কাশেমের স্ত্রী।

নিহত লাইলীর স্বামী আবুল কাশেম বলেন, লাইলী গত ৫ জুলাই ঠাণ্ডাজনিত টনসিলের সমস্যা নিয়ে চিকিৎসার জন্য মমতাজ উদ্দিন হাসপাতালে কর্মরত ঢাকার তেজগাঁওয়ের নাক, কান ও গলা হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মোদাচ্ছির মাহমুদের কাছে গেলে তিনি টনসিলে ইনফেকশন হয়ে গেছে জানিয়ে দ্রুত অপারেশন করতে বলেন। ওই দিন সন্ধ্যায় লাইলীর অপারেশন শুরু হয়। প্রায় দুই ঘণ্টা পরও রোগীকে অপারেশন কক্ষ থেকে বের না করলে তার স্বজনরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন। কিন্তু ওই চিকিৎসক ধমকের সুরে রোগীর আত্মীয়-স্বজনদের অপেক্ষা করতে বলেন। আরও পরে চিকিৎসক মোদাচ্ছির বলেন, ‘রোগীর অবস্থা ভাল নয়। তাকে দ্রুত ঢাকায় নিয়ে যান।’ তখন সন্দেহ হলে তাঁরা জোর করে অপারেশন থিয়েটারে ঢুকে লাইলীকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। এ সময় লাইলীর লাশ অপারেশন টেবিলে রেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পর নিহতের স্বজনরা থানায় মামলা দায়ের করলেও অভিযুক্তদের আটক করেনি পুলিশ। 


এ ঘটনা তদন্তে চার সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ আমজাদুল হক। 

জানা গেছে, সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সার্জারি বিভাগের জুনিয়ার কনসারটেন্ট ডা: শাহনাজ পারভিনকে প্রধান করে চার সদস্য বিশিষ্ট কমিটিটি গঠন করা হয়েছে। ১০ কার্যদিবসের মধ্যে এই কমিটিকে ওই নারীর মৃত্যুর বিষয়টি তদন্ত পূর্বক রিপোর্ট জমা দেয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। 

 



মন্তব্য