kalerkantho


পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বাবা-মাকে ফিরে পেল ভারতীয় তরুণী

নওগাঁ প্রতিনিধি   

২৩ জুন, ২০১৮ ২৩:১৯



পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বাবা-মাকে ফিরে পেল ভারতীয় তরুণী

ভুল করে বাংলাদেশে আসা ভারতীয় সুমনা (১৫) নামে এক তরুণীকে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তার বাবা মায়ের কাছে ফেরত দেওয়া হয়েছে। সুমনা ভারতের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তপন থানার গোপাল নগর গ্রামের বাসিন্দা শরিফুল ইসলামের মেয়ে। শুক্রবার বিকেল ৫টায় নওগাঁর সাপাহার উপজেলার বামনপাড়া সীমান্তের ২৪৬/৭ এস পিলার এলাকায় বিজিবি ও বিএসএফ-এর কম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। 

এতে নেতৃত্ব দেন বিজিবি-১৬ ব্যাটালিয়নের আদাতলা কম্পানি কমান্ডার সুবেদার সামশুল আলম ও ভারতের ১২২ বিএসএফ কম্পানির কাতরইল ক্যাম্পের কমান্ডার এসিবিএ ডোগরা। 

সূত্রে জানা গেছে, সুমনা ১৭ জুন সকাল ১০টার দিকে ভারতের ছত্রহাটি বিএসএফ-এর কাছে তার পরিচয়পত্র জমা দিয়ে কাঁটাতারের বাইরে জমিতে কাজ করতে আসেন। সন্ধ্যায় তার অন্যান্য সঙ্গীরা নিজ নিজ বাড়িতে ফিরে গেলেও সুমনা পথ ভুলে পথ হারিয়ে বামনপাড়া সীমান্ত এলাকা দিয়ে বাংলাদেশের মধ্যে চলে আসে। সুমনা ওই দিন তার নিজ দেশ ভারতে প্রবেশ না করায় ছত্রহাটি বিএসএফ ক্যাম্প থেকে বিজিবি ১৬ ব্যাটালিয়নের আদাতলা ক্যাম্পে তাদের পক্ষ থেকে পত্র প্রেরণ করেন। পত্রে সুমনাকে উদ্ধারের সহযোগিতা কামনা করেন।

এরপর বিজিবির সদস্যগণ ওই তরুণীকে উদ্ধারে ব্যাপক তৎপরতা চালান। গত ২১ জুন রাত ৯টায় আদাতলা বিজিবির কম্পানি কমান্ডার সুবেদার সামশুল আলমের নেতৃত্বে বিজিবির একটি বিশেষ টহল দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাপাহার সদরের জিরো পয়েন্ট এ অবস্থিত নিউ মার্কেট এর সামনে থেকে ওই তরুণীকে উদ্ধার করেন। 

আদাতলা বিজিবির কম্পানি কমান্ডার সুবেদার সামশুল আলম জানান, সুমনাকে উদ্ধারের পর ছত্রহাটি বিএসএফ ক্যাম্পে যোগাযোগ করা হয়। শুক্রবার বিকেলে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে সুমনাকে তার বাবা মার কাছে ফেরত দেয়া হয়েছে।



মন্তব্য