kalerkantho


ভোলায় বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে রাজনৈতিক সভা

ভোলা প্রতিনিধি   

২৩ জুন, ২০১৮ ১৯:২৮



ভোলায় বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে রাজনৈতিক সভা

ভোলা সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের ৮০ নং পশ্চিম ইলিশা আমিন বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে ইউনিয়ন বিজেপির কর্মী সভা করার অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে এ কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মী সভায় সভাপতিত্ব করেন ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক হামিদ বাঘার ছেলে হান্নান। তিন তলা বিশিষ্ট এ সাইক্লোন সেন্টার কাম স্কুলটি পুরোটাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য ব্যবহার করা হয়। পাশেই রয়েছে একটি হাইস্কুল।

কিন্তু সেই স্কুলের খোলা শ্রেণিকক্ষ ও খেলার মাঠ খোলা থাকলেও সেখানে রাজনৈতিক কর্মী সভা না করে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় তলায় স্থানীয় ভাবে ক্ষমতার দাপটে এ কর্মী সভা করা হয়।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক হামিদ বাঘার ছেলে হান্নান ও মামাতো শ্যালক মো. রনি বিজেপির কর্মী সভার প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। কর্মী সভা শেষে ইউনিয়ন ছাত্রসমাজের নেতা রনি তার ফেইবুকে এক স্ট্যাটাসে লেখেন, আজ (বৃহস্পতিবার) আমাদের পশ্চিম ইলিশা বিজেপির সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের মতবিনিময় সভায় আমাদের ইউনিয়ন বিজেপিকে আরো সুসংগঠিত করার লক্ষে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
 
সরেজমিন ঘুরে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে ভোলা সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়ন বিজেপির প্রায় শতাধিক কর্মী নিয়ে স্কুলের দ্বিতীয় তলায় এক কর্মী সভা হয়। কিন্তু এ কর্মী সভার আগে স্কুলটি বন্ধ ছিলো। প্রধান শিক্ষকের ছেলে ও শ্যালক এর আয়োজনে এ সভা হওয়ার কারণে তার বাবার কাছ থেকে সহজেই চাবি নিয়ে আয়োজন করা সম্ভব হয়।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. গিয়াস উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি জেনেছি স্কুলটির মধ্যে বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজেপি-পার্থ) এর একটি কর্মী সভা হয়েছে।
 
এ বিষয়ে ৮০ নং পশ্চিম ইলিশা আমিন বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হামিদ বাঘা কালের কণ্ঠকে বলেন, আমি স্কুলের চাবি কাউকে দেইনি। তবে এর একটি চাবি সহকারি এক শিক্ষকের কাছে আছে তার কাছ থেকে নিতে পারে।

তবে এ বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সামসুল ইসলাম দেওয়ান বক্তব্য দিতে অপরাগতা প্রকাশ করার  পর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নিখিল চন্দ্র হালদার বলেন, আমরা এ বিষয়ে অবগত নই। আগামী কাল রবিবার অফিস খোলার পর আমরা এর বিষয়ে তদন্ত তরে ব্যবস্থা নেব।



মন্তব্য