kalerkantho


জামালপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় গৃহবধূ নিহত, আহত ২

জামালপুর প্রতিনিধি   

২০ জুন, ২০১৮ ২২:১৭



জামালপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় গৃহবধূ নিহত, আহত ২

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় সুমী বেগম (২৫) নামের এক গৃহবধূ নিহত এবং মোটরসাইকেল চালকসহ দুইজন গুরুতর আহত হয়েছেন। আজ বুধবার বিকেলে উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের বগারপাড় মোড়ে গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলটির ধাক্কা লেগে তা উল্টে খাদে পড়ে গেলে  এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

নিহত সুমী সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের পুটিয়ারপাড় গ্রামের মো. রাসেল মিয়ার স্ত্রী। তাদের তিন বছরের এক কন্যা সন্তান রয়েছে। আর হাসপাতালে চিকিৎসাধীনরা হলেন- নিহত সুমীর চাচাতো বোন মল্লিকা আক্তার (১৭) ও একই গ্রামের ময়ান আলীর মেয়ে এবং মোটরসাইকেলচালক মো. আব্দুল আলিম (২৮)। তিনি টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর উপজেলার ভাদুরীচর গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে। 

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, নিহত সুমী বেগমদের বাড়ি সরিষাবাড়ীর পোগলদিঘা ইউনিয়নের পুটিয়ারপাড় গ্রামে। তাদের বাড়ির কাছেই পুটিয়ারপাড় হাফিজিয়া মাদ্রাসার আবাসিক ছাত্র মোটরসাইকেলচালক আব্দুল আলিম। আব্দুল আলিম ওই মাদ্রাসার হেফজখানায় থাকা অবস্থায় সুমী বেগমের বাড়িতে যাতায়াত ছিল। সেই সম্পর্কের সূত্র ধরে আব্দুল আলিম ঈদের ছুটি শেষে আজ বুধবার দুপুরের দিকে গোপালপুরের বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলযোগে সুমী বেগমের চাচাতো বোন মল্লিকা আক্তারের বাড়িতে যায়। সেখানে কিছুক্ষণ সময় কাটানোর পর মল্লিকা আক্তারের মাধ্যমে আব্দুল আলিম সুমী বেগমকে বাড়ি থেকে ডেকে এনে তারা তিনজনেই মোটরসাইকেলে বেড়াতে বের হয়। পথিমধ্যে বিকেল ৪টার দিকে পোগলদিঘা ইউনিয়নের বগারপাড় মোড়ে মোটরসাইকেল ঘুরানোর সময় রাস্তার পাশের একটি কাঁঠাল গাছের সাথে ধাক্কা লাগে। মোটরসাইকেলসহ তারা তিনজনই রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যান। এ সময় সুমী বেগম ঘটনাস্থলেই নিহত হন। আরগুরুতর আহত হন আব্দুল আলিম ও মল্লিকা আক্তার। পরে তাদেরকে সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। 

এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী থানার ওসি (তদন্ত) মোহাব্বত কবীর কালের কণ্ঠকে বলেন, 'নিহত সুমী বেগমের পরিবারের কেউ থানায় কোনো অভিযোগ নিয়ে আসেনি। অভিযোগ পেলে পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নিহতের লাশ সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রয়েছে।'



মন্তব্য