kalerkantho


লক্ষ্মীপুরে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু, হাসপাতাল ভাঙচুর

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

১৭ জুন, ২০১৮ ১৬:১১



লক্ষ্মীপুরে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু, হাসপাতাল ভাঙচুর

লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জে চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় মরিয়ম বেগম নামের এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রবিবার সকালে রোগীর স্বজনরা বিক্ষোভ ও হাসপাতালে ভাঙচুর করে। এসময় বিক্ষুব্ধরা হাসপাতালে তালা দিয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবরুদ্ধ করে রাখে। এদিকে ঘটনার পর থেকে হাসপাতালের মালিক ও চিকিৎসক সোলেমানসহ অন্যরা পলাতক রয়েছেন।  

রোগীর স্বজনদের অভিযোগ, প্রসূতি মরিয়মের ব্যাথা হলে শনিবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে চন্দ্রগঞ্জ রয়েল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সাড়ে ৪টার দিকে চিকিৎসক সোলেমানের তত্ত্বাবধানে তাকে সিজার করা হয়। সন্তান প্রসব হলেও চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় রোগীর কলিজায় ছিদ্রসহ বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি হয়। এতে মরিয়ম মারা যান। 

অন্যদিকে, স্বজনদের কিছু বুঝতে না দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য মৃত মরিয়মকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার জন্য বলেন চিকিৎসকরা। রবিবার সকালে ঢাকা নেওয়ার জন্য অ্যাম্বুলেন্সে উঠানো হলে নড়াচড়া না দেখে তার মৃত্যু হয়েছে নিশ্চিত হন স্বজনরা। এ ঘটনার পর ভুল চিকিৎসার অভিযোগ এনে রোগীর স্বজনরা বিক্ষোভ ও হাসপাতাল ভাঙচুর করে। একপর্যায়ে তালা দিয়ে হাসপাতালে অবস্থানরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবরুদ্ধ করে রাখে। এরআগেই অবস্থার বেগতিক দেখে সোলেমানসহ হাসপাতালের অন্যান্য চিকিৎসকরা পালিয়ে যান। 

চন্দ্রগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাফর আহম্মদ বলেন, প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। বিক্ষোভ ও হাসপাতাল ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটেনি। তবে শুনেছি রোগীর স্বজনরা বিষয়টি মীমাংসা করে নিয়েছেন।



মন্তব্য