kalerkantho


জয়পুরহাটে 'বন্দুকযুদ্ধে' মাদক ব্যবসায়ী নিহত

জয়পুরহাট প্রতিনিধি   

২৬ মে, ২০১৮ ১৫:২০



জয়পুরহাটে 'বন্দুকযুদ্ধে' মাদক ব্যবসায়ী নিহত

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার ভারতীয় সীমান্ত এলাকার ভীমপুরে একটি ইটভাটার পাশে র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে রেন্টু শেখ ওরফে রিন্টু মিয়া (২৯) নামের এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মাদকের ৯টি মামলা আছে।

নিহত রিন্টু মিয়া জয়পুরহাট অঞ্চলের শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। বন্দুক যুদ্ধে র‌্যাবের দুজন সদস্য আহত হলে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলে র‌্যাব দাবি করেছে। 

জয়পুরহাট র‌্যাপিড অ্যকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) ৫ ক্যাম্পের অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামিম হোসেন জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে পাঁচবিবি উপজেলার ভারত সীমান্তবর্তী ভীমপুর এলাকার একটি ইট ভাটাতে মাদক কেনা-বেচা চলছিল। গোপনে সেই খবর পেয়ে র‌্যাব-৫ সদস্যরা সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি ছোঁড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। উভয়পক্ষে ৫ মিনিট গোলাগুলির পর মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়।

এ সময় র‌্যাব ঘটনাস্থলে একজনকে পড়ে থাকতে দেখে তাকে উদ্ধার করে পাঁচবিবি মহীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। পরে পরিবারের মাধ্যমে র‌্যাব মৃত ব্যক্তির পরিচয় নিশ্চিত করে। গুলিবিনিময়ের পর র‌্যাব ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটার গান, দুই রাউন্ড গুলি, ভারতীয় ১২২ বোতল ফেন্সিডিল ও নগদ টাকাসহ বেশ কিছু মালামাল উদ্ধার করে।

বন্দুকযুদ্ধে নিহত রেন্টু শেখের চাচা ফজলুর রহমান মোবাইল ফোনে সাংবাদিকদের বলেন, কোথায় থেকে কি হলো আমরা কিছুই জানি না। শনিবার সেহরি খাওয়ার সময় খবর পেয়েছি রেন্টু বন্দুকযুদ্ধে মারা গেছে। এর বেশি তিনি মন্তব্য করতে রাজি হননি।

র‌্যাব-৫ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শামিম হোসেন বলেন, পাঁচবিবির উত্তর গোপালপুরের জলির মণ্ডলের ছেলে রেন্টু শেখ জয়পুরহাটের শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে জয়পুরহাট ও দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন থানায় মাদক, চোরাচালান ও অপহরণের নয়টি মামলা রয়েছে।


মন্তব্য