kalerkantho


কুমিল্লায় নজরুল উৎসব

আজিজুর রহমান রনি, মুরাদনগর (কুমিল্লা)    

২৫ মে, ২০১৮ ১৮:১৫



কুমিল্লায় নজরুল উৎসব

প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও স্থানীয় প্রশাসন ও নজরুল প্রেমীদের উদ্যোগে কুমিল্লা মহানগরী ও মুরাদনগরের কবিতীর্থ দৌলতপুরে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে নজরুল জয়ন্তী উদযাপিত হচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিতু মরিয়মের সভাপতিত্বে মুরাদনগরের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ আব্দুল কাইয়ুম খসরু। মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন উপজেলার বাঁশকাইট ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক ও কালের কণ্ঠ'র মুরাদনগর প্রতিনিধি মো. আজিজুর রহমান রনি।

আগামীকাল শনিবার আলোচনাসভা 'নজরুল ও নার্গিস: প্রেম ও বিচ্ছেদের উপাখ্যান ও সর্বশেষ নজরুল-নার্গিস  শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে ইসলামী সংগীত পরিবেশনা শেষে বিভিন্ন বিভাগে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণের কথা রয়েছে।

জেলা প্রশাসক আবুল ফজল মীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি স্থানীয় সংসদ সদস্য ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন ও বিশেষ অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ আব্দুল কাইয়ুম খসরু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিতু মরিয়মসহ দেশ বরেণ্য নজরুল গবেষক উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

কুমিল্লায় জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় ও কুমিল্লা জেলা প্রশাসন কর্তৃক নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষে তিন দিনব্যাপী কর্মসূচির প্রথম দিনে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে নগরীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংগীত, নৃত্য ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীরের নেতৃত্বে প্রশাসনের কর্মকর্তা, নজরুল ইন্সটিটিউট কেন্দ্র-কুমিল্লা ও নজরুল পরিষদসহ অন্যান্য সংগঠনের নেতৃবৃন্দ জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে 'চেতনায় নজরুল' ম্যুরালে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে জাতীয় কবি নজরুলের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে নজরুলের জীবনভিত্তিক আলোকচিত্র ও পুস্তক প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়। এরপর 'জাতীয় জাগরণে কবি নজরুল'  প্রতিপাদ্য বিষয়ে আলোচনাসভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

একই সময় জেলার মুরাদনগরের কবিতীর্থ দৌলতপুরে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংগীত, আবৃত্তি প্রতিযোগিতা, প্রবন্ধ পাঠ অনুষ্ঠিত হয়। আগামীকাল শনিবার একই স্থানে আলোচনাসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। কবির জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন আলোচনাসভা, কবিতা আবৃত্তি আর নজরুল সংগীতানুষ্ঠানের মাধ্যমে বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।


মন্তব্য