kalerkantho


আলমডাঙ্গায় পুলিশ-মাদক চোরাকারবারী বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ মে, ২০১৮ ১০:০৮



আলমডাঙ্গায় পুলিশ-মাদক চোরাকারবারী বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গার রেলস্টেশন এলাকায় পুলিশের সঙ্গে এক মাদক চোরাকারবারী নিহত হয়েছেন। সোমবার দিবাগত রাত ১টার দিকে আলমডাঙ্গার রেলস্টেশন এলাকায় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহত কামরুজ্জামান সাধু (৩৫) শীর্ষ মাদক চোরাকারবারী ছিলেন। তিনি আলমডাঙ্গা উপজেলার হারদী গ্রামের মৃত ইমদাদুলের ছেলে। এ সময় অস্ত্র-গুলি ও মাদক উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া বন্দুকযুদ্ধে চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন- এসআই জিয়া, এসআই শহিদ, এএসআই হামিদ ও কনস্টেবল রাকিবুল।

আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি/তদন্ত) লুৎফুল কবীর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সোমবার দিবাগত রাত অনুমান সাড়ে ১২টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পারে একদল মাদক চোরাকারবারী মাদক পাচারের উদ্দেশ্যে রাতে রওয়ানা হবে। এ সংবাদের ভিত্তিতে এসআই জিয়ার নেতৃত্বে একদল পুলিশ আলমডাঙ্গা রেলস্টেশনের অদূরে অভিযান চালালে মাদক চোরাকারবারীরা পুলিশের অবস্থান টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়। পুলিশ ও মাদক চোরাকারবারীদের মধ্যে প্রায় ২০ মিনিট গুলিবিনিময় হয়। চোরাকারবারীরা পুলিশের প্রতিরোধে পিছু হটে পালিয়ে যায়।

ওসি লুৎফুল কবীর আরো জানান, এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে কামরুজ্জামান সাধুকে  গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে এবং তার কাছে থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, তিন রাউন্ড রাইফেলের গুলি ও ২শ পিস ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার করে। সাধুকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আওলিয়ার রহমান মৃত ঘোষণা করেন। কামরুজ্জামান সাধু একজন মাদক আইনে সাজাপ্রাপ্ত আসামি। তার বিরুদ্ধে আলমডাঙ্গা থানায় মাদক আইনে সাজাসহ ১১টি মামলা রয়েছে।

 


মন্তব্য