kalerkantho


কুমিল্লায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

২২ মে, ২০১৮ ০৪:৫৫



কুমিল্লায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত

ছবি: কালের কণ্ঠ

কুমিল্লায় গোয়েন্দা পুলিশ ও কোতয়ালী পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে কুমিল্লার সদর উপজেলার অরণ্যপুর বড় দিঘির পাড়ে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

এ সময় একটি রিভলবার, গুলি, পাজেরো গাড়ি ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করেছে পুলিশ। গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে আরো এক মাদক ব্যবসায়ী। পুলিশের বন্দুকযুদ্ধে এক পরিদর্শকসহ ৪ জন আহত হয়েছে। 

নিহতরা হলেন- কুমিল্লার শুভপুরের মোহাম্মদ আলী মিয়ার ছেলে পিয়ার মিয়া (২৪) এবং কুমিল্লার শুভপুরের আবদুল মান্নানের ছেলে শরিফ (২৬)। 

পুলিশ সূত্র জানায়, কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর সালেহীন ইমনের নেতৃত্বে গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ ও কোতয়ালী পুলিশের অফিসার ইনচার্জ আবু ছালাম মিয়াসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার বিকালে শহরের শুভপুর এলাকা থেকে মাদক ব্যবসায়ী পিয়ার মিয়াকে গ্রেপ্তার করে এবং তার কাছ থেকে ১০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে।

পুলিশ পিয়ার মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদে জানতে পারে একটি পাজেরো জিপে করে মাদকের একটি বড় চালান ঢাকায় পাঠানো হবে। পিয়ার মিয়ার তথ্য মতে পুলিশ অভিযান শুরু করে সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় কুমিল্লার সীমান্তবর্তী অরণ্যপুরের বড়পুকুরের পশ্চিমপাড়ে তল্লাশিকালে একটি পাজেরো গাড়ি দেখতে পায়। পিয়ার মিয়ার শনাক্ত মতে পাজেরো গাড়িটি থামাতে সংকেত দিলে গাড়িতে থাকা মাদক ব্যবসায়ীরা গাড়ি থামিয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়তে থাকে। এ সময় পুলিশও আত্মরক্ষার্থে ৫২ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুঁড়ে। মাদক ব্যবসায়ীদের গুলিতে এ সময় ঘটনাস্থলে পিয়ার আলীসহ তিনজন গুলিবিদ্ধ হয়।

পুলিশ তিনজনকে উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেই সঙ্গে একটি পাজেরো জিপ, একটি রিভলবার, দুই রাউন্ড গুলি, ৫০০ বোতল ফেনসিডিল, ৫০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। পুলিশ আহতদের কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা পিয়ার আলী ও শরিফ নামে দু'জনকে মৃত ঘোষণা করে। আহত গুলিবিদ্ধ চাঁদপুরের শাহরাস্তির আজিজ নগরের নুরুল ইসলামের ছেলে মো. সেলিমকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানভীর সালেহীন ইমন জানিয়েছেন, নিহত পিয়ার আলীর বিরুদ্ধে মাদক নিয়ে বিরোধের জেরে একটি হত্যাসহ ১৩টি মামলা রয়েছে। আর শরিফের বিরুদ্ধে রয়েছে ৫টি মামলা। 



মন্তব্য