kalerkantho


লক্ষ্মীপুরে নিষেধ অমান্য করায় প্রতিবন্ধী শ্রমিককে মারধর

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

২১ মে, ২০১৮ ১৮:১২



লক্ষ্মীপুরে নিষেধ অমান্য করায় প্রতিবন্ধী শ্রমিককে মারধর

লক্ষ্মীপুরে আজাদ হোসেন (৩৮) নামে এক শারিরীক প্রতিবন্ধি ইটভাটার শ্রমিককে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। তিনি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নের পিয়ারাপুর গ্রামের খোরশেদ আলম ও ইসমাইল হোসেন তাকে মারধর করেন বলে জানা গেছে। 

আহত আজাদ পিয়ারাপুর গ্রামের নজিব উল্যাহর ছেলে ও তেওয়ারীগঞ্জের বোরহান চৌধুরীর ইটভাটার শ্রমিক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, আজাদ দুই মাস ধরে তেওয়ারীগঞ্জের বোরহান চৌধুরীর ইট ভাটায় কাজ করে আসছে। কয়েকদিন থেকে অন্য এক ইটভাটার তত্ত্বাবধায়ক খোরশেদ ও ইমাইল তাকে কাজ করতে নিষেধ করে। তাদের নিষেধ অমান্য করে আজাদ ফের কাজে যায়। গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় কাজ করতে ইটভাটায় গেলে তারা আজাদকে পিটিয়ে আহত করে।  পরে স্থানীয়রা তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। 

তারা আরো জানায়, অভিযুক্ত খোরশেদ পিয়ারাপুর গ্রামের হাফিজ উল্যার ছেলে ও ইসমাইল সুজায়েত উল্যার ছেলে।

বোরহান চৌধুরীর ইটভাটার তত্ত্বাবধায়ক নোমান হোসেন বলেন, খোরশেদ ও ইসমাইলের সঙ্গে আমার ব্যবসায়ীক দ্বন্দ্ব রয়েছে। এজন্য তারা আজাদকে আমার ইটভাটায় কাজ করতে নিষেধ করেছে। তাদের নিষেধ অমান্য করায় শ্রমিককে মারধর করে। 

অভিযুক্ত খোরশেদ আলম বলেন, আজাদকে হাসপাতালে ভর্তি করার বিষয়টি আমি শুনেছি। তবে তাকে মারধরের বিষয়টি আমি জানি না। 

এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) বলেন, প্রতিবন্ধী আজাদ বুকে আঘাত পেয়েছে। হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে। তবে তিনি শঙ্কামুক্ত রয়েছেন 



মন্তব্য