kalerkantho


বিড়িশিল্প বন্ধের প্রস্তাবে প্রতিবাদ সমাবেশ, গণ স্বাক্ষর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ এপ্রিল, ২০১৮ ১৩:১৯



বিড়িশিল্প বন্ধের প্রস্তাবে প্রতিবাদ সমাবেশ, গণ স্বাক্ষর

দুই বছরের মধ্যে বিড়ি শিল্প বন্ধ করে দেয়ার প্রতিবাদে ফুঁসে উঠেছেন বিড়ি শ্রমিক ও বিড়ি ভোক্তারা। অর্থমন্ত্রীর এই প্রস্তাবের পরপরই দেশজুড়ে চলছে তাদের প্রতিবাদ, গণস্বাক্ষর গ্রহণ ও মানববন্ধনের মতো নানা কর্মসূচি। প্রতিদিনই দেশের কোথাও না কোথাও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এসব প্রতিবাদ সমাবেশে বিড়ি শ্রমিক ও ভোক্তারা বলছেন, সিগারেট চালু রেখে কোনো ভাবেই বিড়ি বন্ধ করতে দেয়া হবে না। কারণ বিড়ি শিল্পের সঙ্গে হতদরিদ্র ও নিম্নশ্রেনীর মানুষ জড়িত। নদী ভাঙ্গা, স্বামী পরিত্যক্তা মহিলা শ্রমিকরা এই শিল্পের সঙ্গে জড়িত। এটি বন্ধ করে দেয়া হলে এসব ভাগ্যাগত মানুষের জীবনে চরম দু;খ দুর্দশা নেমে আসবে।

প্রতিবাদকারীরা বলছেন, ভারতে বিড়ি শিল্পকে কুটির শিল্প হিসেবে ঘোষণা করে তার সুরক্ষা দেয়া হচ্ছে। অন্যদিকে বাংলাদেশে বিড়ি শিল্প বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। তারা বলেন, ভারতে প্রতি হাজার বিড়িতে শুল্ক নেয়া হয় ১৪ টাকা বাংলাদেশে ২৫২ টাকা। তারা বাংলাদেশে বিড়িকে কুটির শিল্প ঘোষণা এবং প্রতি হাজার বিড়িতে ১৪ টাকা শুল্ক নির্ধারণের দাবি জানান।

গত ৭ এপ্রিল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিড়ি শ্রমিকরা মহা সমাবেশ করেছে।  গত ২৩ এপ্রিল জাতীয় প্রেসক্লাবের অডিটোরিয়ামে মহা সমাবেশ করেছেন তামাকচাষী ও ব্যবসায়ীরা। সিগারেট চালু রেখে বিড়ি শিল্পবন্ধে ঘোষণায় ময়মনসিংহে প্রতিবাদ সমাবশে হয়েছে। দুই বছরের মধ্যে বিড়িশিল্প বন্ধ এবং সিগারেট শিল্পকে ২২ বছর সময় দেয়ার প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জে এক প্রতিবাদ ও গণস্বাক্ষর গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বক্তরা বলেন,, বিড়ি শিল্প ২ বছররে মধ্যে বা ২০২০ সালে এবং সিগারেট শিল্প ২০ বছররে মধ্যে বা ২০৩৮ সালে বন্ধ করা হবে। এটা একটি বৈষম্যমুলক প্রস্তাব। এতে এই শিল্পের সাথে জড়িত লাখ লাখ শ্রমিকরা বেকার হয়ে পড়বে।

বিড়ি শিল্প বন্ধ না করা এবং বিড়ি ও সিগারেটের মধ্যে বৈষম্য দূর করার প্রতিবাদে সিলেট অঞ্চলে ব্যবসায়ী ও বিড়ি ভোক্তাদের উদ্যোগে গত বৃহস্পতবিার সিলেট নগরীর ধোপা দিঘির পারে হাফিজ কমপ্লেক্সের সামনে এক প্রতিবাদ সমাবশে মানববন্ধন ও গণস্বাক্ষর কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। শেরপুর হাসপাতাল রোডের সামনে বিড়ির শ্রমিক ভোক্তা  ও ব্যবসায়ীরা অর্থমন্ত্রীর ২ বছরের মধ্যে বিড়ি বন্ধের ঘোষণাসহ বৈষম্যমূলক করনীতি ও সিগারেটের পক্ষপাতমূলক আচনের বিরুদ্ধে মানববন্ধন সমাবেশ ও গণস্বাক্ষর কর্মসূচী পালন করেছে।  

 



মন্তব্য