kalerkantho


কমিশন না পেয়ে ওষুধের দোকানিকে পেটানোর অভিযোগ!

নড়াইল প্রতিনিধি   

২৫ এপ্রিল, ২০১৮ ০১:২৩



কমিশন না পেয়ে ওষুধের দোকানিকে পেটানোর অভিযোগ!

ক্লিনিকের মালিককে ওষুধের কমিশন দিতে অস্বীকার করায় দোকানে হামলা করে দোকান মালিককে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে এক ক্লিনিক মালিকের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিচার দাবিতে মঙ্গলবার (২৪এপ্রিল) সকাল থেকে নড়াইলের সকল ওষুধের দোকান বন্ধ রেখে ধর্মঘট করেছে কেমিষ্ট অ্যান্ড ড্রাগিষ্ট সমিতি নড়াইল জেলা শাখা। অনির্দিষ্টকালের জন্য এ ধর্মঘটের ডাক দেওয়ায় সকাল ১১টা থেকে সদর হাসপাতাল মার্কেটসহ সব ওষুধের দোকার বন্ধ করে দেওয়া হয়।

এদিকে জরুরি ওষুধের দোকান বন্ধ থাকায় নড়াইল সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর ওষুধ কিনতে না পারায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারন জনগণ। স্থানীয় বাজার থেকে ওষুধ কিনতে না পেরে অনেকে পাশের জেলা যশোর থেকেও প্রয়োজনীয় ওষুধ কিনে আনছেন।

জানা গেছে, সোমবার রাত ১০টার দিকে নড়াইল শহরের জনতা সার্জিক্যাল ক্লিনিকের মালিক শিপন সিকদার সদর হাসপাতাল মার্কেটে বলাকা ফার্মেসী থেকে এক রোগীর অস্ত্রপচারের ওষুধ নিতে পাঠায়। এর কিছুক্ষণ পরে এসে ক্লিনিক মালিক শিপন সিকদার দোকানির নিকট ওষুধের কমিশন দাবি করে।

দোকান মালিক নিতাই সাহা ক্লিনিক মালিক শিপনকে কমিশন দিতে অস্বীকৃতি জানালে শিপন ক্ষুদ্ধ হয়ে লোকজন নিয়ে বলাকা ফার্মেসীতে হামলা ও ভাংচুর চালায়। এসময় বাধা দিতে গেলে বলাকা ফার্মেসী মালিক নিতাই সাহা (জেলা কেমিষ্ট অ্যান্ড ড্রাগিষ্ট সমিতির সহ-সভাপতি) কে লাঞ্চিত করে। এ সময় আশপাশের দোকানিসহ লোকজন এগিয়ে গেলে শিপন ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

এর প্রতিবাদে মঙ্গলবার সকালে সমিতির এক জরুরি সভায় অনির্দিষ্টকালের জন্য ঘর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়। বাংলাদেশ কেমিষ্ট অ্যান্ড ড্রাগিষ্ট সমিতি, নড়াইল জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আব্দুল্লাহ আল বাকি বলেন, আমাদের একজন ওষুধ ব্যবসায়ীকে মারা হয়েছে, এই ঘটনার বিচার এবং সন্ত্রাসী ক্লিনিক মালিক শিপনকে গ্রেফতার না করা পর্যন্ত এই ধর্মঘট অনিদৃষ্টকালের জন্য চলবে।

অভিযুক্ত জনতা ক্লিনিকের মালিক শিপন সিকদার তার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, কোনো মারামারি কিংবা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেনি। আমার ক্লিনিকে অপারেশনের এক রোগীর প্রয়োজনীয় ওষুধ না দিয়ে একটি ভুল ওষুধ দেয় বলাকা ফার্মেসী, এ ব্যাপারে জানতে গেলে ফার্মেসীর লোকেরা আমাদের সাথে অকথ্য ব্যবহার করে মারতে তেড়ে আসে।



মন্তব্য