kalerkantho


রানা প্লাজা ধসের পাঁচ বছর

সাভারে অস্থায়ী স্মৃতিস্তম্ভে মোমবাতি প্রজ্বালন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)    

২৪ এপ্রিল, ২০১৮ ০৯:১৯



সাভারে অস্থায়ী স্মৃতিস্তম্ভে মোমবাতি প্রজ্বালন

সাভারে রানা প্লাজা ধসের পাঁচ বছর পূর্তি উপলক্ষে মোমবাতি প্রজ্বালন করে নিহত শ্রমিকদের স্মরণ করেছেন নিহত পরিবারের স্বজন, আহত ও ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিক ও বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কসংলগ্ন সাভার বাজার বাসস্ট্যান্ডে ধসে পড়া রানা প্লাজার সামনে অস্থায়ীভাবে নির্মিত স্মৃতিস্তভের পাশে সাভার রানা প্লাজা সারভাইভারস অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে এ মোমবাতি প্রজ্বালন করা হয়। এ সময় কয়েশ শ মোমবাতি প্রজ্বালন করা হয়।

মোমবাতি প্রজ্বালন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন রানা প্লাজা ধসে নিহত শ্রমিক রুহুল আমীনের মা জোবেদা খাতুন, নিহত সালমা আক্তার সুমির মা রোজিয়া আফরোজ, নিহত রফিকুল ইসলামের মা ফিরোজা বেগম, নিহত আরিফুর রহমানের মা খোদেজা বেগম, আহত শ্রমিক শিলা বেগম, হৃদয়সহ আরো অনেকে। এ সময় তারা কান্নায় ভেঙে পড়েন। পরে তারা অবিলম্বে রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি  দাবি করেন। এ সময় বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দও যোগ দেন তাদের সঙ্গে। 

এ সময় বক্তব্য দেন গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র সাভার-আশুলিয়া আঞ্চলিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক খাইরুল মামুন মিন্টু (কেএম মিন্টু), সভাপতি লুৎফর রহমান আকাশ, গার্মেন্ট টেক্সটাইল শ্রমিক ফোরামের সদস্য সাচব শাহ আলম, বাংলাদেশ গার্মেন্ট অ্যান্ড শিল্প শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি রফিকুল ইসলাম সুজন, সাভার রানা প্লাজা সারভাইভারস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মাহমুদুল হাসান হৃদয়, নিহত সালমা আক্তার সুমির মা রোজিয়া আফরোজ প্রমুখ।

বক্তারা অবিলম্বে সোহেল রানাসহ দোষীদের বিচার সম্পন্ন করা এবং রানা প্লাজায় শহীদ শ্রমিকদের স্মরণে স্থায়ী স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণের দাবি জানান। তারা আহতদের সুচিকিৎসার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও দাবি জানান।



মন্তব্য