kalerkantho


গৃহবধু হত্যার জেরে

লক্ষ্মীপুরে বহিরাগতদের নিয়ে ৫ ঘরে হামলা, আহত ৫

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

২২ এপ্রিল, ২০১৮ ২৩:৩৮



লক্ষ্মীপুরে বহিরাগতদের নিয়ে ৫ ঘরে হামলা, আহত ৫

লক্ষ্মীপুরে গৃহবধূ জোসনা বেগমকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে পৃথক হামলা চালিয়ে স্বামীর পরিবারের ৫ টি বসতঘরে কুপিয়ে ভাংচুর ও মালামাল তছনছ করা হয়েছে। এ সময় বাধা দিতে গিয়ে নারীসহ ৪ জন আহত হয়।

রবিবার বিকেলে সদর উপজেলার পিয়ারাপুর ও কামালপুর গ্রামে নিহতের উত্তেজিত স্বজনরা বহিরাগতদের নিয়ে এ তাণ্ডব চালায়। এ নিয়ে ওই এলাকাগুলোতে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

গত শুক্রবার রাতে জোসনাকে হত্যার অভিযোগ ওঠে স্বামী সুজন ও তার পরিবারের সদস্যদের ওপর। তবে শনিবার রাতে পুলিশ সুজনকে কুমিল্লা থেকে আটক করেছেন।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে সন্ধ্যা পর্যন্ত এ ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক  করতে পারেনি পুলিশ। আহত সুরমা বেগম, মারিয়া আক্তার নিলা, রহমত উল্যা ও হামিলা বেগম রুনাকে স্থানীয়রা ক্লিনিকে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

ক্ষতিগ্রস্থরা হলো, পিয়ারাপুর গ্রামের সুজনের বসত ঘর, বড় বোন আলেয়া বেগমের ঘর, বড় ভাই হারুনের ঘর, মেঝ ভাই সোহাগ পাটওয়ারীর ঘর ও পাশ্ববর্তী কামালপুর গ্রামের তার ছোট বোন রুমার ঘর।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ওসি মো. লোকমান হোসেন জানান, গৃহবধূ হত্যার ঘটনার তার স্বামী সুজনকে কুমিল্লা থেকে আটক করা হয়েছে। এ নিয়ে থানায় মামলা হয়েছে। হামলা ও ভাংচুরের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। 



মন্তব্য