kalerkantho


ভোলার মনপুরায় পাখী শিকার করায় চারজনের জেল-জরিমানা

ভোলা প্রতিনিধি   

২১ এপ্রিল, ২০১৮ ২২:২৩



ভোলার মনপুরায় পাখী শিকার করায় চারজনের জেল-জরিমানা

ভোলার মনপুরায় পাখি শিকার করার সময় এয়ারগানসহ চারজনকে আটক করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে তাদেরকে জেল ও জরিমানা দেওয়া হয়। আটকৃতদের কাছ থেকে ১টি এয়ারগান ও ১টি তিলা ঘুঘু জব্দ করা হয়েছে। 

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, এক দল পর্যটক মনপুরায় এসে বিভিন্ন স্পটে পাখি শিকার করছেন। আজ শনিবার এলাকাবাসীর কাছে খবর পেয়ে ভ্রাম্যামাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল আজিজ ভূঁঞা অভিযান চালিয়ে হাজির হাট ইউনিয়নের চরফৈজুদ্দিন গ্রামের চৌমহনী মোড় সংলগ্ন রাস্তার ওপর পাখি শিকার করা অবস্থায় চারজনকে আটক করে। এদের মধ্যে পাখি নিধনকারী তিনজন ও গাজা বহনকারী একজন রয়েছে। আটককৃতদের কাছ থেকে ১টি এয়ারগান ও ১টি তিলা ঘুঘু জব্দ করা হয়েছে। আটককৃতরা হলেন- আতাউল হোসেন (৩০), মোঃ মোহন খান (৩৫), ওয়াহিদ আলম (৩২) এবং বাদল(৩০)। 

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যজিষ্ট্রেট শিকারকারী মোঃ মোহন খান, ওয়াহিদ আলম ও বাদলকে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন ২০১২ অনুযায়ী প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে ৩ মাসের জেল প্রদান করেন। অপরদিকে তাদের সঙ্গে থাকা গাজা বহনকারী আতাউল হোসেনকে ৬ মাসের বিনাশ্রম জেল দেওয়া হয়। 

অভিযান পরিচালনার সময় আরো উপস্থিত ছিলেন হাজির হাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহরিয়ার চৌধুরী দ্বিপক,বন কর্মকর্তা সুকুমার চন্দ্র শীল, হাজির হাট ভারপ্রাপ্ত বিট কর্মকর্তা মোঃ মিলন। 

জানা গেছে, আটককৃতদের বাড়ি বরিশাল ও সিলেটের সুনামগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলায়। তারা মনপুরায় ঘুরতে এসেছেন। 


মন্তব্য