kalerkantho


ষষ্ঠ দিনেও শুরু হয়নি কার্গো বিলাস উদ্ধার কাজ

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি    

২০ এপ্রিল, ২০১৮ ২০:৩৭



ষষ্ঠ দিনেও শুরু হয়নি কার্গো বিলাস উদ্ধার কাজ

প্রচণ্ড স্রোত ও ঢেউয়ের কারণে মোংলা বন্দরের হাড়বাড়িয়ায় ডুবে যাওয়া কয়লাবোঝাই কার্গো জাহাজ এমভি বিলাস উদ্ধার কাজ শুরু করতে পারছে না ডুবুরিরা। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে  ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার তৎপরতার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করলেও ঢেউ এবং স্রোতের ফলে আজ শুক্রবার সকালেও উদ্ধার কাজ শুরু করা সম্ভব হয়নি।

উদ্ধার কাজে নিয়োজিত হোসেন স্যালভেজের মালিক মো. সোহরাব হোসেন মোল্লা বলেন, 'উদ্ধার কাজের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হলেও ঢেউ আর প্রচণ্ড স্রোতের জন্য কাজ করা যাচ্ছে না। স্রোতের টানে কয়লা উত্তোলনের জন্য ড্রেজারের পাইপ কার্গো জাহাজে স্থাপন করা যাচ্ছে না।

পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. শাহীন কবির বলেন, 'মালিকপক্ষের লোকজন উদ্ধার তৎপরতার জন্য ঘটনাস্থলে অবস্থান করলেও নদী উত্তাল থাকায় এবং প্রচণ্ড স্রোতে কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে তারা সেখানে উদ্ধারের প্রাথমিক কাজ করছেন। ডুবন্ত জাহাজটি উদ্ধারের জন্য বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌছায় মালিকপক্ষের ভাড়াকৃত একটি বলগেট, একটি ড্রেজার, একটি লঞ্চ ও ২৮ সদস্যের একটি ডুবরিদল।' 

এ দিকে, কার্গো উত্তোলনের ক্ষেত্রে বন্দর কর্তৃপক্ষের বেঁধে দেওয়া ১৫ দিনের সময়সীমার মধ্যে ইতিমধ্যে পেরিয়ে গেছে ছয় দিন। তারপর উদ্ধার কাজে তদারকিকারী কার্গো জাহাজের মাস্টার মো. ফরিদী বলেন, 'কাজ শুরুর ১৫ দিনের মধ্যে জাহাজটি উদ্ধার করা সম্ভব হবে। দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে বনবিভাগের গঠিত তদন্ত কমিটি প্রাথমিক তদন্ত শেষ করেছে।'

বনবিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের সহকারী বনসংরক্ষক (এসিএফ) মো. শাহিন কবিরের কমিটি তার প্রাথমিক রিপোর্টে বলেছেন, 'ডুবে যাওয়া কার্গো এমভি বিলাসের মাস্টারের অজ্ঞতা, অবহেলা ও খামখেয়ালিপনার কারণে জাহাজটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ডুবেছে।' 


মন্তব্য