kalerkantho


রাজশাহীর চারঘাটে প্রতিবাদ করায় প্রতিবেশীকে খুন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ মার্চ, ২০১৮ ১৬:১১



রাজশাহীর চারঘাটে প্রতিবাদ করায় প্রতিবেশীকে খুন

বাবা ও মাকে মারপিট করার প্রতিবাদ করায় প্রতিবেশী এক নারীকে খুন করা হয়েছে। নিহত নারীর নাম মর্জিনা বেগম লতা (৫৫)। এ সময় আহত হয়েছেন পাঁচজন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার মোক্তারপুর পাইকানপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় হত্যাকারী মোকছেদ আলীকে উত্তমমধ্যম দিয়ে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছেন এলাকাবাসী।

নিহত মর্জিনা মোক্তারপুর পাইকানপাড়া গ্রামের মৃত সাইফুল ইসলাম তারার স্ত্রী। আর আহতরা হলেন- মোকছেদ আলী (৩০), মোকছেদ আলীর বাবা জামাল উদ্দিন (৬৫), মা ছফেরা বেগম (৬০), প্রতিবেশী শাপলা বেগম (৩৫) ও অপর প্রতিবেশী মোকলেছা বেগম (৩৮)।


এ ব্যাপারে মডেল থানার ওসি নজরুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নেশাগ্রস্ত যুবক মোকছেদ আলী তার বাবা জামাল উদ্দিন ও মা ছফেরা বেগমের কাছে টাকা চায়। বাবা-মা টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তাদের এলোপাতাড়িভাবে মারপিট করতে থাকেন। এ ঘটনা দেখে প্রতিবেশী মর্জিনা বেগম লতা প্রতিবাদ করেন। এ সময় নেশাগ্রস্ত মোকছেদ হাঁসুয়া নিয়ে লতাকে তাড়া করেন। পরে লতা রাস্তায় পড়ে গেলে মোকছেদ লতাকে উপর্যুপরি কোপায়। এতে তিনি ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এ সময় আটকাতে গিয়ে মোকলেছা বেগম ও শাপলা বেগম আহত হন। পরে গ্রামবাসী মোকছেদকে আটক করে উত্তমমধ্যম দিয়ে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে। পরে পুলিশ মোকছেদকে উদ্ধার করে চারঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

চারঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. হাছান জানান, আহত মোকছেদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।


মন্তব্য