kalerkantho


মাদারগঞ্জে প্রেমিক যুগলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

জামালপুর প্রতিনিধি   

১৪ মার্চ, ২০১৮ ১৭:০৬



মাদারগঞ্জে প্রেমিক যুগলের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

জামালপুরের মাদারগঞ্জে গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় সুজন মিয়া ও জয়া আক্তার নামে প্রেমিক যুগলের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বুধবার সকালে মাদারগঞ্জ উপজেলার কড়ইচূড়া ইউনিয়নের ঝাড়কাটা সেতু এলাকায় বনজ গাছের বাগান থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। 
  
গ্রামবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আজ বুধবার সকালে মাদারগঞ্জ উপজেলার কড়ইচূড়া ইউনিয়নের ঝাড়কাটা সেতু এলাকায় বনজ গাছের বাগানের একটি গাছের ডালের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় এক যুবক ও এক যুবতীকে দেখে স্থানীয়রা ভিড় করেন। গ্রামবাসীরা তাদের শনাক্ত করে তাদের বাড়িতে স্বজনদের কাছে এবং মাদারগঞ্জ থানায় জানায়। পরে পুলিশ আজ বুধবার বেলা ১২টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করে এবং লাশের সুরতহাল করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। 

সূত্র আরো জানায়, নিহত যুবকের নাম সুজন মিয়া (২৫), সে কড়ুইচূড়া গ্রামের আহাম্মদ আলীর ছেলে এবং যুবতীর নাম জয়া আক্তার (২২), সে একই গ্রামের কালাম মন্ডলের ছেলে। এ ব্যাপারে মাদারগঞ্জ থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।  

এদিকে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) দিলীপ চন্দ্র সরকার জানান, লাশের সুরতহাল করার সময় ওই যুবকের পকেটে জয়া আক্তারের একটি জন্ম সনদ পাওয়া গেছে। তার বাড়ি মাদারগঞ্জ উপজেলার কড়ইচূড়া ইউনিয়নের পূর্ব নলছিয়া গ্রামে হলেও জন্ম সনদটিতে তার ঠিকানায় পিতার নাম কালাম মন্ডল ও মাতার নাম শেফালি বেগম উল্লেখসহ জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার নোয়ারপাড়া ইউনিয়নের হাড়গিলা এলাকার নতুনপাড়া গ্রাম উল্লেখ থাকায় রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। 

এ ব্যাপারে মাদারগঞ্জ থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, ওই যুবক-যুবতীর মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তবে নির্জন স্থানে প্রেমিক জুটির মৃত্যুর বিষয়টি অধিকতর তদন্ত না করে এখনই কিছুই বলা যাচ্ছে না যে এটি হত্যা, নাকি আত্মহত্যা। লাশ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।



মন্তব্য