kalerkantho


আদালত পরিবর্তন করেও শেষ রক্ষা হলো না অধ্যক্ষের

পাথরঘাটা(বরগুনা)প্রতিনিধি   

১৩ মার্চ, ২০১৮ ২২:৫৭



আদালত পরিবর্তন করেও শেষ রক্ষা হলো না অধ্যক্ষের

শেষ রক্ষা হলো না আমতলী কলেজের অধ্যক্ষ মহোদয়ের। বিচারাধীন আদালত পরিবর্তন করেও হাজতবাস থেকে রক্ষা পায়নি তিনি। আমতলী উপজেলার আমতলী সরকারি কলেজের একটি প্রতারণা ও দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত হলে হাজতবাসের আশঙ্কা অনুভব করে তিনি মামলাটি পাথরঘাটা উপজেলা বিচারিক আদালতে স্থানান্তর করেন। কিন্তু পাথরঘাটা উপজেলা আদালতের বিচারক মো. মুজ্ঞুরুল ইসলাম তার জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

পাথরঘাটা উপজেলা বিচারিক আদালত ও আমতলী প্রেসক্লাব সুত্রে জানা গেছে, জেলার আমতলী সরকারি কলেজের দায়িত্বপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো.মজিবর রহমান কলেজ জাতীয়করণ ত্বরান্বিতকরণের লক্ষ্যে ৪৮ জন শিক্ষক ও কর্মচারির নিকট থেকে ১৭ লাখ ৬০ হাজার টাকা উৎকোচ গ্রহণ করেন। এ ঘটনায়
শিক্ষক কর্মচারীদের পক্ষে মো.ইউসুফ আলী দণ্ডবিধির ৪০৬/৪২০ ধারায় আমতলী উপজেলা বিচারিক আদালতে ২০১৭ সালের ১২ র্মাচ মামলা করেন। মামলা নম্বর ১০৯/১৭ । মামলাটি তদন্তের জন্য বরগুনা জেলা বারের সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. মোতালেব মিয়াকে প্রদান করা হলে অধ্যক্ষ মো. মজিবর রহমানের অপরাধ প্রমাণিত হয়। তদন্তে অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় আমতলীর জেষ্ঠ্য বিচারিক আদালতের হাকিম মো. হুমাযুন কবির তাকে হাজির হওয়ার জন্য সমন দেন। 

এরপরে অধ্যক্ষ মজিবর রহমান নিজেকে হাজতবাস থেকে রক্ষার জন্য আদালত পরিবর্তন করে আজ মঙ্গলবার পাথরঘাটা উপজেলা বিচারিক আদালতে হাজির হন। পাথরঘাটা জেষ্ঠ্য বিচারক আদালতের হাকিম মো. মঞ্জুরুল ইসলাম তার জামিন আবেদন নামজ্ঞুর করে তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।



মন্তব্য