kalerkantho


ইউএস বাংলার বিমান বিধ্বস্ত

নেপাল ট্র্যাজেডির শিকার ফরিদপুরের মাহমুদুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

১৩ মার্চ, ২০১৮ ১৬:৫৮



নেপাল ট্র্যাজেডির শিকার ফরিদপুরের মাহমুদুর রহমান

ফরিদপুরের ছেলে এস এম মাহমুদুর রহমান চাকরি করতেন রানার গ্রুপের ঢাকার তেজগাঁও অফিসে হেড অব সার্ভিস পদে। সেই সুবাধে তার ঢাকায় থাকা। অফিসের কাজে গতকাল সোমবার ইউএস বাংলার বিমানে করে নেপালের উদ্দেশে যাত্রা করেছিলেন তিনি। কে জানত আর ফিরে আসা হবে না তার নিজ মাটিতে।

জেলার নগরকান্দা উপজেলার লস্করদিয়া ইউনিয়নের লস্করদিয়া গ্রামের মশিউর রহমানের দুই সন্তানের মধ্যে সবার বড় ছিলেন মাহমুদুর রহমান। প্রায় সাত বছর আগে সানজিদা বেগম ঝর্ণাকে বিয়ে করেছেন তিনি। তাদের এক মেয়ে সন্তার রয়েছে। 

আজ দুপুরে লস্কারদিয়া গ্রামের বাড়িতে গিয়ে জানা গেছে, ছেলের অকাল ও করুণ মৃত্যুর খবরে মাহমুদুর রহমানের মা লিলি বেগম বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন। একমাত্র ভাই বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন। আর কোনো কথাই বলতে পারছেন না বাবা মশিউর রহমান। 

গতকাল সোমবার নেপালে কাঠমান্ডুতে বিধ্বস্ত বিমানের যাত্রী ছিলেন তিনি। দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়াদের তালিকায় তার নাম নেই। 

মাহমুদুর রহমানের চাচা শাহ মো. আফতাব উদ্দিন জানান, সর্বশেষ গত দুই মাস আগে সে বাড়ি এসেছিল। 

তিনি আরো জানান, মাহমুদুর ছিলেন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তার উপার্জনে চলত সংসার। এখন এই পরিবারের উপার্জনক্ষম কেউ নেই। সংসার চালাবে কে জানে?    

উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার ঢাকা থেকে রওনা হয়ে কাঠমান্ডুর ত্রিভূবন বিমানবন্দরে অবতরণের সময়  বিধ্বস্ত হয় ইউএস-বাংলার ড্যাশ উড়োজাহাজটি।



মন্তব্য