kalerkantho


অটোরিকশা থেকে নামিয়ে নারী চিকিৎসককে গণধর্ষণ

রাজবাড়ী প্রতিনিধি    

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৩:৩২



অটোরিকশা থেকে নামিয়ে নারী চিকিৎসককে গণধর্ষণ

ঢাকা থেকে রাজবাড়ী হয়ে ফরিদপুর যাওয়ার পথে এক নারী চিকিৎসককে (২৪) সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়েছে বলে  অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগকারী ওই চিকিৎসক বাদী হয়ে আজ রবিবার সকালে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। র‌্যাবের সহযোগিতায় অভিযুক্ত তিন যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তাররা হলো রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর ইউনিয়নের দত্তপাড়া গ্রামের আরশাদ মোল্লার ছেলে মামুন মোল্লা (২০), সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের মজলিশপুর গ্রামের মৃত মুন্নাফ সরদারের ছেলে হান্নান সরদার (৩০) ও একই মৃত আবুল মোল্লা ছেলে রানা মোল্লা (২৫)।

ওই চিকিৎসক জানান, তিনি ঢাকা থেকে গত শুক্রবার রাত ৮টার দিকে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ মোড় এসে নেমে  ফরিদপুরে যাওয়ার গাড়ি খুঁজতে থাকেন। এ সময় এক অটোরিকশা চালক তাকে বলেন, 'এখান থেকে ফরিদপুরের গাড়ি পাওয়া যাবে না। আমার অটোতে ওঠেন শিবরামপুর গেলে ফরিদপুরের গাড়িতে উঠিয়ে দেবো।' এ সময় ওই চিকিৎসক অটোরিকশায় ওঠেন।

অটোরিকশায় চালক ছাড়াও আরো দুইজন যুবক বসা ছিল। অটোটি গোয়ালন্দ মোড়-শিবরামপুরের মাঝামাঝি নির্জন জায়গায় পৌঁছালে সেটি দাঁড় করিয়ে চালকসহ তিনজন এবং অজ্ঞাত আরো ৩-৪ জন মিলে রাস্তার পাশে নিয়ে তাকে গণধর্ষণ করে। ওই সময় তার চিৎকার শুনে  স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে যুবকরা অটোরিকশা নিয়ে পালিয়ে যায়।

রাজবাড়ী থানার ওসি তারিক কামাল বলেন, ওই ঘটনায় আজ দুপুরে চিকিৎসক নিজেই বাদী হয়ে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনায় জড়িত তিনজনকে ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে ওসি জানান।



মন্তব্য