kalerkantho


ধামরাইয়ে ফের চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)    

২২ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৬:৪০



ধামরাইয়ে ফের চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই

ঢাকার ধামরাইয়ে আবারো চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। আজ সোমবার সকালে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইর ছোট কালামপুর ব্রিজের নিচ থেকে বকুল মিয়া (৩০) নামের ওই রিকশাচালকের লাশ  উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহতর বকুল মিয়া কালামপুর এলাকায় পরিবার নিয়ে ভাড়ায় বসবাস করে ওই এলাকায় অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। তিনি নীলফামারী জেলার ডোমরা থানার গাঁওতারা হাটিয়াপাড়া গ্রামের গফুর উদ্দিনের ছেলে।

অপরদিকে ধামরাইয়ের কাওয়ালীপাড়া এলাকা থেকে সোহাগ হোসেন (২৫) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার ভালুম গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে।

পুলিশ জানায়, বকুল মিয়া ভাড়ায় ব্যাটারিচালিত রিকশা চালাতেন। সকালে স্থানীয়রা কালামপুর ব্রিজের নিচে তার লাশ দেখে ধামরাই থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ সেখান থেকে বকুল মিয়ার লাশ উদ্ধার করে। নিহতের সারা শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ভোররাতে যাত্রীবেশী ছিনতাইকারীরা তার অটোরিকশা ভাড়া করে তাকে কালামপুর ব্রিজের নিচে নিয়ে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে লাশ সেখানে ফেলে অটোরিকশাটি নিয়ে পালিয়ে যায়।

আরো পড়ুন সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশিসহ নিহত ৯ 

অপরদিকে, উপজেলার ধামরাই কাওয়ালীপাড়া এলাকা থেকে সোহাগ (২৫) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের ধারণা, ওই যুবক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকার ধামরাইয়ে কুল্লা ইউনিয়নের কুল্লা-আড়ালিয়া সড়কের সিতি-কাকনাইল এলাকায় আমিজউদ্দিন (৩২) নামের একজ অটোরিকশাচালককে গলা কেটে হত্যা করে তার রোজগারের একমাত্র অবলম্বন রিকশাটি নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। ওই ঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার বা ছিনতাই হওয়া রিকশাটি উদ্ধার করতে পারেনি।

আরো পড়ুন উখিয়ায় ছুরিকাঘাতে রোহিঙ্গা যুবক খুন 

ধামরাই থানার ওসি মুহাম্মদ রিজাউল হক বলেন, 'খুনিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। নিহতদের লাশ  ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।' 

 



মন্তব্য