kalerkantho


শেরপুরে পরিবেশ সচেতনতায় মুক্তমঞ্চ বিতর্ক

শেরপুর প্রতিনিধি   

১৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ০২:৫৩



শেরপুরে পরিবেশ সচেতনতায় মুক্তমঞ্চ বিতর্ক

‘নদী-নালা, খাল-বিল, জঙ্গল বাঁচলে, বাঁচবে বাংলাদেশ। ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে বিপর্যয় থেকে বাঁচাতে প্রাণ-প্রকৃতি ও জীববৈচিত্র রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে’। এমন শ্লোগানে শেরপুরে পরিবেশ সচেতনতামুলক ব্যতিক্রমী মুক্তমঞ্চ বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়েছে। শেরপুর শহরের রঘুনাথ বাজার থানা মোড়ে বুধবার রাতে ট্রাকের ওপর ভ্রাম্যমাণ মঞ্চে সংসদীয় ধারার এমন বিতর্কের আয়োজন করে নাগরিক সংগঠন জনউদ্যোগ শেরপুর জেলা কমিটি।

আইইডি ও শেরপুর ডিস্ট্রিক্ট ডিবেট ফেডারেশনের সহায়তায় ‘সরকারি উদ্যোগের চাইতে সামাজিক সচেতনতাই পরিবেশ দূষণরোধে অধিক গুরুত্বপূর্ণ’ এমন প্রস্তাবের ওপর এ বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়। এতে শেরপুর সরকারি কলেজ ডিবেট ক্লাবের দু’টি বিতর্ক দল অংশগ্রহণ করে।

মুক্তমঞ্চ বিতর্কের শুরুতে জেলার খাল-বিল, পাহাড়-নদীর বর্তমান অবস্থা এবং প্রাকৃতিক পরিবেশ সংরক্ষণের ওপর গুরুত্ব আরোপ করে বক্তব্য রাখেন শেরপুর ডিস্ট্রিক্ট ডিবেট ফেডারেশনের সভাপতি সাংবাদিক দেবাশীষ ভট্টাচার্য, অধ্যাপক শিব শংকর কারুয়া, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক সাবিহা জামান শাপলা। বিতার্কিক এস এম ইমতিয়াজ চৌধুরী এতে স্পীকার ও কুদরত উল্লাহ ডেপুটি স্পীকারের দায়িত্ব পালন করেন।

পরে জনউদ্যোগ আহ্বায়ক শিক্ষক আবুল কালাম আজাদের সঞ্চালনায় বিতর্কের পর্যবেক্ষণ তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন জেলা আ’লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক মো. শামীম হোসেন, মহিলা পরিষদ নেত্রী আঞ্জুমান আরা যুথী, নারী উদ্যোক্তা আইরীন পারভীন।

এ সময় নিজেদের আচরণগত পরিবর্তন, যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা না ফেলা, নিজের বাড়ি-কর্মস্থলের আশপাশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার পাশপাশি সরকারি আইনকানুন মেনে চলার ওপর তারা তাগিদ দেন। এ মুক্তমঞ্চ বিতর্ক অনুষ্ঠানটি সাধারণ মানুষের মাঝে ব্যাপক কৌতুহলের সৃষ্টি করে। এজন্য তারা আয়োজকদের অভিনন্দন জানান।



মন্তব্য