kalerkantho


নাটোরে হত্যার দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন

নাটোর প্রতিনিধি   

১৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০২:১০



নাটোরে হত্যার দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন

নাটোরে এক যুবককে হত্যার দায়ে মো. শাহ আলম নামের অপর এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানার রায় দিয়েছেন নাটোরের জ্যেষ্ঠ জেলা ও দায়রা জজ মো. রেজাউল করিম। মঙ্গলবার এই রায় ঘোষণা করা হয়। অপরদিকে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় চারজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।   দণ্ডপ্রাপ্ত শাহ আলম নাটোরের সিংড়া উপজেলার বিনগ্রামের হাসেন শেখের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, সিংড়া উপজেলার বিনগ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে শরিফুল ইসলাম ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালাতেন। তিনি ২০১১ সালের ৩১ ডিসেম্বর সন্ধার পর নিখোঁজ হন। রাতে উপজেলার দৌপুকুরিয়া বটগাছের কাছে তাঁর মৃতদেহ পাওয়া যায়। লিঙ্গ ও অন্ডকোষ কেটে এবং হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে তাঁকে হত্যা করা হয়।

এ ব্যাপারে নিহতের পিতা আব্দুল জলিল বাদি হয়ে পরের দিন থানায় চারজনকে আসামী করে হত্যা মামলা করেন। সিংড়া থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক (এসআই) সৈকত হাসান মামলাটি তদন্ত করে ২০১৩ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি আদালতে শাহ আলমসহ পাঁচজনের নামে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

জেলা জজ আদালতের কৌঁসুলি সিরাজুল ইসলাম জানান, মামলা তদন্তের সময় শাহ আলম পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার পর দোষ স্বীকার করে বিচারিক হাকিমের কাছে জবানবন্দি প্রদান করেছিলেন। পরে মামলাটি বিচারের জন্য জ্যেষ্ঠ জেলা ও দায়রা জজ রেজাউল করিমের আদালতে এলে তিনি সাড়্গ্য প্রমাণ গ্রহণ শেষে  বিচারক দোষ স্বীকারকারী আসামি শাহ আলমকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন।

অপর তিন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাঁদেরকে খালাস দেওয়া হয়। রায়ে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।


মন্তব্য