kalerkantho


শিবগঞ্জে আটক ৯ উট চিড়িয়াখানায় হস্তান্তরের দাবিতে মানববন্ধন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ২৩:০০



শিবগঞ্জে আটক ৯ উট চিড়িয়াখানায় হস্তান্তরের দাবিতে মানববন্ধন

ছবি: কালের কণ্ঠ

এক ব্যতিক্রমী দাবি নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে মানববন্ধন হয়েছে। আজ সোমবার দুপুরে শিবগঞ্জ ডাকবাংলা চত্বরে শিবগঞ্জের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন 'আরেলা অনন্য পরিষদ' আটক ৯টি উটের নিলাম বন্ধ ও চিড়িয়াখানায় পাঠানোর দাবিতে মানববন্ধন করে।

শিবগঞ্জ কাস্টমস এ জমা দেয়া ৯টি উটের নিলাম বন্ধ ও চিড়িয়াখানায় পাঠানোর দাবিতে মানববন্ধনে জোর দাবি জানান বক্তারা। মানববন্ধনে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সোনামসজিদ সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে ৯টি উট আসার পর বিজিবি আটক করে কাস্টমসে জমা দিলে একটি স্বার্থান্বেষী মহল উটগুলি নিলামের অপচেষ্টা করছে। এসব উট এখন রাষ্ট্রীয় সম্পদ, নিলামে বিক্রির পর হত্যা না করে চিড়িযাখানায় হস্তান্তরের জোর দাবি জানানো হয় মানববন্ধনে। বক্তব্য রাখেন অধ্যক্ষ আতাউর রহমান, ডাক্তার মো. রবিউল ইসলাম, কাউন্সিলর কাজিউজ্জামান বাবু, সাংবাদিক ও সংগঠনের আহ্বায়ক আহসান হাবিব ও সাংবাদিক জামাল হোসেন পলাশ, সমাজসেবক মাসুদ রানা, যুবলীগ নেতা অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, তারেক আহম্মেদ, সামিউল ইসলাম সোহান, মো. সফিক আহম্মেদ সফিক, কেতাবুল আলম, জাসদ ছাত্রলীগ নেতা নুরুল রাফি।

১২ জানুয়ারি শুক্রবার ভোররাতে শিবগঞ্জ উপজেলার সোনামসজিদ ও শিয়ালমারা সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে ৯টি উট নিয়ে বাংলাদেশে আসার সময় সোনামসজিদ ও শিয়ালমারা বিজিবি ক্যাম্পের সদস্য উটগুলো আটক করে। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানায় পৃথক পৃথক ২টি মামলা দায়েরের পর শিবগঞ্জ কাস্টমস শুল্ক গুদামে ৯টি উট জমা দেয়া হয়। মামলায় একটিতে ৮ জনের ও অপরটিতে ৯ জনের নাম উল্লেখ করে পলাতক দেখিয়ে শিবগঞ্জ থানায় শুক্রবার দুপুরে মামলা করা হয়।

মামলার আসামিরা হলো- শিয়ালমারা এলাকার শাহ পরান, মো. হারুন, মো. সইমুদ্দিন ও নুরুল ইসলাম বিহারী, দৌলতবাড়ি এলাকার মো. রুহুল, মো. শরিফ ও আশারু এবং ভোলাহাট উপজেলার আলালপুর এলাকার মো. আলমগীর হোসেনসহ আব্দুর রাজ্জাক, শাহনেওয়াজ, আনোয়ার কবির, শারু মিয়াসহ ১৭ জন।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও উটগুলি নিলামের বিরোধীতা করে চিড়িয়াখানায় দেয়ার জোর দাবি জানিয়েছে অনেকেই।



মন্তব্য