kalerkantho


সোনামসজিদ সীমান্তে আটক ৯ উট চিড়িয়াখানায় পাঠানোর দাবি

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ    

১৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ২২:১৭



সোনামসজিদ সীমান্তে আটক ৯ উট চিড়িয়াখানায় পাঠানোর দাবি

ছবি : কালের কণ্ঠ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার সোনামসজিদ ও শিয়ালমারা সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে চোরাচালান হয়ে আসা ৯টি উট চিড়িয়াখানায় পাঠানোর দাবি জানান এলাকাবাসী। এর আগে গত শুক্রবার ভোররাতে বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা অভিযান চালিয়ে উটগুলো আটক করে শিবগঞ্জ কাস্টমস শুল্ক গুদামে জমা দেয়। শিবগঞ্জ কাস্টমস শুল্ক গুদাম কর্তৃপক্ষ এই ৯টি উট নিলামের প্রক্রিয়া শুরু করেছে বলে জানান কাস্টমস পরিদর্শক আলমগীর হোসেন। 

এলাকাবাসী জানান, দেশের বড় কয়েকটি চিড়িয়াখানায় উট নেই দর্শনার্থীদের বিনোদনের জন্য। আটক উট নিলামে বিক্রি করা হলে এগুলো ব্যাক্তি পর্যায়ে চলে গিয়ে অনেক উচ্চ মূল্যে বিক্রি করবে। নিলামে জোগসাজসে দুর্নীতিরও সম্ভাবনা রয়েছে। আর তাহলে সরকার প্রকৃত রাজস্ব হারানোর পাশাপাশি চিড়িয়াখানার দর্শনার্থীরা বঞ্জিত হবেন।

ঢাকা জাতীয় চিড়িয়াখানার পশু চিকিৎসক ডক্টর নাজমুল হুদা জানান, আমি ঢাকা চিড়িয়াখানায় সাড়ে পাঁচ বছর ধরে আছি। এসময়ে কোন উট ছিলনা এবং এখনও নাই। তিনি জানান, ২/৩ টি উট কেনা চেষ্টা চলছে, দেশেই উটের খামার বেসরকারিভাবে গড়ে উঠছে। মরুভূমি অঞ্চলের পশু উট হলেও বাংলাদেশের আবহাওয়ায় উট পালন ও চিড়িয়াখানায় রাখার উপযোগী পরিবেশ ও আবহাওয়া রয়েছে। আটক উট চিড়িয়াখানায় দেয়া হলে দর্শক ও রাজস্ব বাড়বে চিড়িয়াখানার।

বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ রাজশাহী বিভাগের পরিদর্শক মোঃ জাহাঙ্গীর কবীর জানান, শিবগঞ্জে উট আটকের বিষয়টি জানা ছিলনা। রাজশাহী চিড়িয়াখানার তত্বাবধায়কের সাথে কথা বলে তাকে দিয়ে মেয়র ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সাথে আলাপ করে চিড়িয়াখানায় যাতে দেয়া হয় তার জন্য আজ রবিবার রাতে কথা বলবো। 

শিবগঞ্জ কাস্টমস শুল্ক গুদামের আলমগীর হোসেন আজ রবিবার সন্ধ্যায় জানান, উটগুলি নিলামের জন্য আদালতের আদেশের জন্য সকালে শুনানী হয়েছে। আদেশে কি বলা হয়েছে তা জানা যায়নি। এদিকে আইনজীবী আব্দুর রাজ্জাক জানান, বিজ্ঞ বিচারক শহিদুল হক এর আদালতে উটগুলি নিলামের জন্য আদেশ ও অনুমতি চাওয়া হলে বিজ্ঞ আমলী আদালত অনুমতি দিয়েছেন।

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার সোনামসজিদ ও শিয়ালমারা সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারত থেকে চোরাচালান হয়ে আসা ৯টি উট গত শুক্রবার ভোররাতে আটক করে বিজিবি। এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ থানায় পৃথক পৃথক ২টি মামলা দায়েরের পর শিবগঞ্জ কাস্টমস শুল্ক গুদামে উটগুলোকে জমা দেয়া হয়। 

সোনামসজিদ বিওপি বিজিবি ক্যাম্পের কমান্ডার মোঃ আব্দুর রহমান জানান, দুই সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে আসা উট আটকের মামলায় একটিতে ৮ জনের ও অপরটিতে ৯ জনের নাম উল্লেখ করে তাদের পলাতক দেখিয়ে শিবগঞ্জ থানায় শুক্রবার দুপুরে মামলা করা হয়। 

 

 

 

 

 

 



মন্তব্য