kalerkantho


কুতুবদিয়ায় উন্নয়ন কাজে বাধার অভিযোগে আওয়ামী লীগ নেতা আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

১২ জানুয়ারি, ২০১৮ ২৩:১৪



কুতুবদিয়ায় উন্নয়ন কাজে বাধার অভিযোগে আওয়ামী লীগ নেতা আটক

প্রতীকী ছবি

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় সরকারের চলমান উন্নয়ন কাজে বাধা প্রদানের অভিযোগে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে আটক করে ১৪ ঘন্টা পর মুচলেখা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। আটক হওয়া রেজাউল করিম দ্বীপ কুতুবদিয়া উপজেলার লেমশীখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছৈয়দ আহমদ কুতুবীর ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের চতুর্থ বছর পূর্তির সময় গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে আটক হওয়া ওই আওয়ামী লীগ নেতা প্রাথমিক বিদ্যালয় উন্নয়ন প্রকল্পের কাজে বাধা প্রদান করেন। দ্বীপের লেমশীখালী ইউনিয়নের দরবার ঘাট এলাকায় ১১টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বহুতল ভবন নির্মাণের চলমান উন্নয়ন কাজে ব্যবহৃত মালামাল উঠা-নামার কাজ নিয়ে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের সাথে তার (নেতার) বাক-বিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে ওই নেতা তার পিতা ছৈয়দ আহমদ কুতুবীর নামের লাইসেন্স করা বন্দুক দিয়ে দুই রাউন্ড ফাকাঁ গুলিও বর্ষণ করেন। এ ঘটনা নিয়ে এলাকায় ভীতির সৃষ্টি হয়। 

কুতুবদিয়া থানার ওসি মোঃ দিদারুল ফেরদৌস গতরাতে জানান- এ খবর পেয়ে বড় ধরণের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষার জন্য একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রেজাউল করিমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। তাকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত থানায় আটক রাখার পর মুচলেখা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। 

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও কুতুবদিয়া উপজেলার সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী ঘটনার সত্যা স্বীকার করে জানান- তিনি একটু বেপরোয়া আচরণ করেন বিধায় পুলিশ থানায় নিয়ে এসেছিল। কুতুবদিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবরও ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।  



মন্তব্য