kalerkantho


মহেশখালীতে দুই সন্ত্রাসী বাহিনীর বন্দুকযুদ্ধ, নিহত ১

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ২২:৫৩



মহেশখালীতে দুই সন্ত্রাসী বাহিনীর বন্দুকযুদ্ধ, নিহত ১

কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার হোয়ানক নামক এলাকায় দুই সন্ত্রাসী বাহিনীর বন্দুকযুদ্ধে আবছার (২৮) নামের এক যুবলীগ কর্মী নিহত হয়েছেন। আজ (সোমবার) রাত ৯টার দিকে দ্বীপের হোয়ানক কালাগাজি পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, হোয়ানকের কালাগাজির পাড়ার দুই সন্ত্রাসী জালাল বাহিনী ও জোনাব আলী বাহিনীর মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ঘটনাস্থলেই যুবলীগ নেতা আবছার নিহত হন।

নিহতের পরিবারের পক্ষে আবছারকে ওয়ার্ড যুবলীগের স্থানীয় নেতা বলে দাবী করা হয়েছে। তবে মহেশখালী উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শেখ কামাল জানান, নিহত আবছার তাদের কেউ নন। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়।  

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, দুই সন্ত্রাসী বাহিনীর মধ্যে এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই বিবাদ চলে আসছিল। এ ঘটনার জের ধরেই দুই বাহিনীর মধ্যে গুলাগুলির ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী জানায়, এ ঘটনায় জালাল বাহিনীর সদস্য আবুল কালামের পুত্র আবছার নিহত হন।

এদিকে এলাকার লোকজনের দাবি, জোনাব আলী বাহিনীর সদস্যরা আবছারকে দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। এরপরই উভয় পক্ষের মধো গুলাগুলির ঘটনা ঘটে। শেষ খবর পাওয়া পর্ষন্ত এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। পুলিশ লাশ উদ্ধারের জন্য ঘটনাস্থলে গেছে।

প্রসঙ্গত, আধিপত্যের জের ধরে দীর্ঘ ৫ বছর ধরে এলাকাটিতে জোনাব আলী ও জালাল বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা চলে আসছিল। ওই সময়ের মধ্যে উভয়পক্ষের অন্তত ৬ জন নিহত হয়। এ ছাড়া সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে ৩ বছর আগে পুলিশের এসআই পরেশ কারবারি গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছিলেন।



মন্তব্য